আজকের বার্তা | logo

৪ঠা অগ্রহায়ণ, ১৪২৫ বঙ্গাব্দ | ১৮ই নভেম্বর, ২০১৮ ইং

বঙ্গবন্ধু অডিটোরিয়ামের নির্মাণ কাজ বন্ধ

প্রকাশিত : মে ৩১, ২০১৮, ০২:৩১

বঙ্গবন্ধু অডিটোরিয়ামের নির্মাণ কাজ বন্ধ

সাঈদ পান্থ ॥ প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার বিশেষ বরাদ্দের বঙ্গবন্ধু অডিটোরিয়ামের নির্মাণ কাজ সাড়ে ৪ বছরেও শেষ হচ্ছে না। সিটি করপোরেশনের তত্ত্বাবধানে থাকা ৫শ আসনবিশিষ্ট ৫ তলা ভবনের কাজ ১ বছরের মধ্যে সম্পন্ন হওয়ার কথা থাকলেও এই কাজ আর শেষ হচ্ছে না। অর্থ সংকটের কারণেই এই অবস্থার সৃষ্টি হয়েছে। ফলে এই অডিটোরিয়ামের সুবিধা থেকে বঞ্চিত হচ্ছে বরিশালবাসী। দীর্ঘদিনেও এ ভবনের নির্মাণ কাজ শেষ না হওয়ায় বিক্ষুব্ধ হয়ে উঠছে বরিশালের সাংস্কৃতিক অঙ্গন। তবে বিসিসি বলছে, এর কাজ শতভাগ শেষ হয়েছে। ভবনের বাইরে ও ভেতরের সাজসজ্জাসহ কিছু কাজ বাকি রয়েছে। খুব শীঘ্রই এ ভবন হস্তান্তর করা হবে। বরিশালের সাংস্কৃতিক অঙ্গনের দীর্ঘদিনের দাবি ছিলো একটি আধুনিক অডিটোরিয়ামের। এর পরিপ্রেেিত বর্তমান প্রধানমন্ত্রীর বিশেষ বরাদ্দ ও আদেশে বরিশাল সিটি করপোরেশন নগরীর কেন্দ্রীয় শহীদ মিনার প্রাঙ্গণে আধুনিক অডিটোরিয়াম নির্মাণ প্রকল্প হাতে নেয়। বিসিসি সূত্রে জানা গেছে, ২০১৪ সালের ১৩ জানুয়ারি কেন্দ্রীয় শহীদ মিনার সংলগ্ন জায়গায় ৫শ’ আসনবিশিষ্ট ৫ তলা বঙ্গবন্ধু অডিটোরিয়াম ভবনের নির্মাণ কাজ শুরু হয়। ১৭ কোটি ২৭ লাখ ৩১ হাজার ৫৫০ টাকা প্রকল্পের নির্মাণ ব্যয় ধরে ভবনটির নির্মাণ কাজ শেষ হওয়ার কথা ছিলো ১ বছরের মধ্যেই। কিন্তু সাড়ে ৩ বছর পার হয়ে যাওয়ার পরও এর কাজ শেষ হচ্ছে না। এ দিকে এই অডিটোরিয়ামের কাজ শেষ না হওয়ায় ক্ষোভের সঞ্চার হয়েছে বরিশালের সাংস্কৃতিক অঙ্গনে। নাট্য ব্যক্তিত্ব সৈয়দ দুলাল জানান, এই অডিটোরিয়ামের অভাব সাংস্কৃতিক সংগঠকরা টের পাচ্ছেন। এ ভবনটির কাজ শেষ না হওয়ায় তীব্র ক্ষোভ সবার মাঝে বিরাজ করছে। বরিশালের ২৭টি সংগঠনের জোট বরিশাল সাংস্কৃতিক সংগঠন সমন্বয় পরিষদের সভাপতি নাট্যজন কাজল ঘোষ বলেন, “যদি অডিটোরিয়াম এর কাজ সম্পন্ন করতে অর্থের প্রয়োজন হয় তবে অনতিবিলম্বে ‘রি-টেন্ডার’ করতে হবে। বেশ কিছু কাজ বাকি রয়েছে। বিশেষ করে লাইট, সাউন্ডসহ আনুষঙ্গিক টেকনিক্যাল কার্যক্রম। এই অডিটোরিয়ামটি বরিশাল তথ্য দক্ষিণাঞ্চলের সংস্কৃতি কর্মীদের দীর্ঘদিনের প্রত্যাশা। অডিটোরিয়ামের অভাবে সুষ্ঠুভাবে সাংস্কৃতিক চর্চা করতে পারছি না। এই অডিটোরিয়ামের নির্মাণ কাজ কেন থেমে আছে তার কারণ জানা নেই আমাদের। তবে এই বিষয়ে সমন্বয় পরিষদ অতিশীঘ্র সিটি কর্পোরেশনের সাথে আলোচনায় বসবে।” সাংস্কৃতিক সংগঠন গণশিল্পী সংস্থার সদস্য অধ্যাপিকা দিপ্তী রানী ঘোষ জানান, “বরিশালে সাংস্কৃতিক কার্যক্রম পরিচালনার জন্য ভালো কোনো অডিটোরিয়াম নেই। বঙ্গবন্ধু অডিটোরিয়াম আমাদের স্বপ্ন দেখিয়েছে। কিন্তু এ কাজ শেষই হচ্ছে না।” প্রধানমন্ত্রী এ অডিটোরিয়াম করার জন্য বিশেষ বরাদ্দ দিয়েছেন। তারপরও এ কাজ কেন শেষ হচ্ছে না এ প্রশ্ন তার। সরকারের নিজস্ব অর্থায়নে বরিশাল সিটি করপোরেশনের তত্ত্বাবধায়নে পাঁচতলা ভবনে ৫শ’ আসনবিশিষ্ট আধুনিক এ অডিটোরিয়ামটির কাজ দেওয়া হয় মেসার্স কহিনুর এন্টারপ্রাইজ ও মোমেন সিকদার (জেভি) নামের ঠিকাদারি প্রতিষ্ঠানকে। তবে মেয়াদ শেষ হতে না হতেই ভবনটির নকশা পরিবর্তনসহ প্রকল্প ব্যয় বাড়িয়ে ২৫ কোটি করা হয়। বর্ধিত মেয়াদে ২০১৬ সালের জুনে অডিটোরিয়ামের কাজ শেষ করে হস্তান্তর করার কথা ছিলো। কিন্তু তাও হয়নি। ঠিকাদারি প্রতিষ্ঠান মোমেন সিকদারের (জেভি) স্বত্বাধিকারী মোমেন সিকদারের সাথে এ বিষয়ে বারবার যোগাযোগ করা হলেও তাকে পাওয়া যায়নি। বিসিসি’র প্রধান প্রকৌশলী খান মো: নুরুল ইসলাম এক মাসের মধ্যে কাজ হয়ে যাবে বলে আশা প্রকাশ করেন। তিনি বলেন, কাজটি করছেন ঠিকাদার মোমেন সিকদার। সরকার ১৭ কোটি ২৭ লাখ টাকা দিয়েছে। কিন্তু অতিরিক্ত কাজের টাকা আর সরকার দিবে না। এ টাকা বিসিসিকে দিতে বলা হয়েছে। সেই টাকা দিতে না পারার কারণে ঠিকাদারি প্রতিষ্ঠান একটু গতি হারিয়েছে। তারপরও কাজ চালিয়ে নেয়া হচ্ছে বলে তিনি জানান। বরিশাল সিটি করপোরেশনের প্রধান নির্বাহী কর্মকর্তা মো: ওয়াহিদুজ্জামান জানান, তার আসার পূর্বেই এই কাজ শুরু হয়েছে। বিষয়টি তেমন জানা নেই। তবে প্রধান প্রকৌশলী তাকে জানিয়েছেন তাদের শতভাগ কাজ শেষ হয়েছে। কিন্তু দুইটি সিঁড়ি, বড় লিফটসহ কিছু অতিরিক্ত কাজের জন্য টাকা পাওনা রয়েছে। এই টাকাটা পাওয়া গেলেই না কি তারা হস্তান্তর করতে পারেন।

Share Button


আজকের বার্তা

আগরপুর রোড, বরিশাল সদর-৮২০০

বার্তা বিভাগ : ০৪৩১-৬৩৯৫৪(১০৫)
ফোনঃ ০১৯১৬৫৮২৩৩৯ , ০১৬১১৫৩২৩৮১
ই-মেলঃ ajkerbarta@gmail.com

সামাজিক যোগাযোগ
Site Map
Show site map

© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত
প্রকাশকঃ কাজী মেহেরুন্নেসা বেগম
সম্পাদক ও প্রতিষ্ঠাতাঃ কাজী নাসির উদ্দিন বাবুল
Website Design and Developed by
logo

আজকের বার্তা কর্তৃক সর্বস্বত্ব সংরক্ষিত। অনুমতি ছাড়া এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা, ছবি ও বিষয়বস্তু অন্য কোথাও প্রকাশ করা বেআইনি।