আজকের বার্তা | logo

৪ঠা অগ্রহায়ণ, ১৪২৫ বঙ্গাব্দ | ১৮ই নভেম্বর, ২০১৮ ইং

আমের নামে বরিশালে বিক্রি হচ্ছে বিষ!

প্রকাশিত : মে ২০, ২০১৮, ১৫:৪১

আমের নামে বরিশালে বিক্রি হচ্ছে বিষ!

অপরিপক্ক ফল কেন বিক্রি করছেন জানতে চাইলে বরিশাল ফলপট্টি এলাকার খুচরা ফল বিক্রেতা জাকির হোসেন   বলেন, ‘কি করমু ভাই, আমি যদি না বেচি পাশেরজন ঠিকই বেচব। পরে দেহা যাইবো বৌ-পুলাপাইন লইয়া আমারই না খাইয়া থাহা লাগব।’ সময়ের আগেই আম কী দিয়ে পাকানো হয়েছে এমন প্রশ্নের জবাবে জাকির বলেন, ‘ভাই, আমি জানমু কেমনে, এগুলো বড় ব্যবসায়ীরা জানে।’

বরিশাল নগরীর ফলপট্টি, পোর্টরোড এবং নতুন বাজার ঘুরে কয়েকজন পাইকারি ব্যবসায়ীর সঙ্গে কথা হয়। মৌসুমের আগেই বর্তমানে বাজারে আসা বেশিরভাগ ফলগুলো অপরিপক্ক স্বীকার করেছেন সবাই। কেউ আম খেতে পছন্দ করেন, কেউ লিচু আবার কেউবা কাঁঠাল। তিনটি রসালো ফলেরই বেশ কদর রয়েছে মানুষের কাছে। ফলগুলোর পুষ্টিগুণও অনেক। কিন্তু পছন্দের তালিকায় যার যেটাই হোক না কেন, রসনা তৃপ্ত করতে দাম দিয়ে কিনে যে ফলটা খাচ্ছে, সেটা নিরাপদ তো? সেই ফলের প্রকৃত স্বাদ ও পুষ্টিগুণ ঠিকমতো আছেতো?

বর্তমানে বাজারে যে মৌসুমী ফল রয়েছে, সেটা এখনই না খাওয়ার পরামর্শ দিচ্ছেন পুষ্টি ও খাদ্য বিশেষজ্ঞরা। তাদের মতে- ‘সবজায়গায় যেসব মৌসুমী ফল দেখছেন এগুলো কৃত্রিকভাবে পাকানো হচ্ছে। এত তাড়াতাড়ি আম, লিচু ও কাঁঠাল খাওয়ার জন্য তাড়াহুড়ো করার কিছু নেই, এই মৌসুমী ফলগুলো পরিপক্ক হয়ে বাজারে আসতে আরও ১০ থেকে ১২ দিনের মত লাগতে পারে। ধারণা নেওয়ার জন্য তারাও দুই একটি আম কিনে দেখেছেন। এগুলো সবগুলো ছিল আর্টিফিশিয়াল (কৃত্রিম) ভাবে পাকানো এবং কম মিষ্টির।’

কৃষি গবেষণা ইনস্টিটিউটের পরিচালক (বিজ্ঞানী) লুৎফর রহমান   বলেন- ‘কিছু ব্যবসায়ী সময়ের আগেই বাজার ধরার জন্য বেশি পয়সা পাওয়ার জন্য কিছু বুদ্ধিসুদ্ধি করে। আসলে দেখেতো বোঝার উপায় নেই কোনটাতে মেডিসিন দেওয়া আর কোনটাতে মেডিসিন দেওয়া না। তবে এখন না খাওয়াটাই শ্রেয়।’’

Share Button


আজকের বার্তা

আগরপুর রোড, বরিশাল সদর-৮২০০

বার্তা বিভাগ : ০৪৩১-৬৩৯৫৪(১০৫)
ফোনঃ ০১৯১৬৫৮২৩৩৯ , ০১৬১১৫৩২৩৮১
ই-মেলঃ ajkerbarta@gmail.com

সামাজিক যোগাযোগ
Site Map
Show site map

© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত
প্রকাশকঃ কাজী মেহেরুন্নেসা বেগম
সম্পাদক ও প্রতিষ্ঠাতাঃ কাজী নাসির উদ্দিন বাবুল
Website Design and Developed by
logo

আজকের বার্তা কর্তৃক সর্বস্বত্ব সংরক্ষিত। অনুমতি ছাড়া এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা, ছবি ও বিষয়বস্তু অন্য কোথাও প্রকাশ করা বেআইনি।