আজকের বার্তা | logo

৬ই অগ্রহায়ণ, ১৪২৫ বঙ্গাব্দ | ২০শে নভেম্বর, ২০১৮ ইং

শিক্ষক নিয়োগ পরীক্ষা: প্রশ্নফাঁস চক্রের মূল হোতাসহ বরগুনায় গ্রেপ্তার ১৩

প্রকাশিত : এপ্রিল ২০, ২০১৮, ২৩:৪৪

শিক্ষক নিয়োগ পরীক্ষা: প্রশ্নফাঁস চক্রের মূল হোতাসহ বরগুনায় গ্রেপ্তার ১৩

বরগুনা সংবাদদাতা ॥ সারাদেশে প্রাথমিক বিদ্যালয়ের সহকারী শিক নিয়োগ পরীার প্রশ্নপত্র ফাঁস এবং উত্তর বিতরণ চক্রের মূল হোতা হুমায়ুন কবীরসহ এ পর্যন্ত ১৩ জনকে গ্রেপ্তার করেছে বরগুনা জেলা পুলিশ। গ্রেপ্তারকৃতদের মধ্যে তিনজন পরীার্থীও রয়েছেন। দেশের ১২ জেলায় গতকাল শুক্রবার সকালে এ পরীা অনুষ্ঠিত হয়। শুক্রবার দুপুর ২টায় জেলা পুলিশ সুপারের কার্যালয়ে আয়োজিত এক সংবাদ সম্মেলনে এ তথ্য জানান পুলিশ সুপার বিজয় বসাক (পিপিএম,বিপিএম)। বরগুনা পৌর শহরের ব্রাঞ্চ রোড এলাকা থেকে আটক মাহবুব বিশ্বাসের দেওয়া তথ্যানুযায়ী রাত থেকেই অভিযান শুরু করে পুলিশ। পরদিন শুক্রবার সকাল ১১টার দিকে বরগুনার লঞ্চঘাট এলাকা থেকে মূলহোতা হুমায়ুন ও তার দুই সহযোগী এবং বিভিন্ন এলাকায় অভিযান চালিয়ে অন্য একটি চক্রের প্রধান নাজমা বেগমসহ ১২ জনকে আটক করা হয়। পুলিশ সূত্রে জানা গেছে, চক্রটির মূলহোতা হুমায়ূন কবীর ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের শিা গবেষণা ইনস্টিটিউট (আইইআর) থেকে পাস করে রাজধানী ঢাকায় সাধারণ বীমা কর্পোরেশনের সহকারী ব্যবস্থাপক হিসেবে চাকরি করেন। তার বাড়ি পটুয়াখালী জেলার মির্জাগঞ্জ উপজেলার ৫ নং কাকড়াবুনিয়া ইউনিয়নের গাজিপুরা গ্রামে। তার বাবার নাম মৃত শাহ আলম হাওলাদার। পুলিশ সুপার বিজয় বসাক জানান, আধুনিক তথ্যপ্রযুক্তি এবং পুলিশ সদর দপ্তরের সহয়তায় গত তিনদিন ধরে এই চক্রটির দিকে নজর রাখছিল পুলিশ। এরই ধারাবাহিকতায় বরগুনা শহরের বিভিন্ন এলাকায় এবং শুক্রবার সকালে একাধিক পরীার হলে অভিযান চালিয়ে তাদের গ্রেপ্তার করা হয়। গ্রেপ্তারকৃতদের কাছ থেকে নগদ দুই লাখ ৫৮ হাজার টাকা, পরীার হলে উত্তর সরবরাহের জন্যে আধুনিক প্রযুক্তির ৭টি ডিভাইস ও ৫টি ুদ্র হিয়ারিং ডিভাইস, ২৩টি মোবাইল এবং ৬টি প্রবেশপত্র উদ্ধার করেছে পুলিশ। এ চক্রের সঙ্গে জড়িত অন্যদের গ্রেপ্তারে অভিযান চলছে। পুলিশ সুপার আরও জানান, মোটা অংকের অর্থের বিনিময়ে প্রথমে প্রশ্নফাঁস করে পরে আধুনিক তথ্য প্রযুক্তির সমন্বয়ে অতিসূক্ষ্ম ও ুদ্র হিয়ারিং ডিভাইসের মাধ্যমে পরীার হলে উত্তর সরবরাহের পরিকল্পনা নিয়ে কাজ করছিল এ চক্রটি। তবে গ্রেপ্তারকৃতদের বিস্তারিত নাম-পরিচয় জানায়নি পুলিশ। বরগুনা থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) এসএম মাসুদুজ জামান জানান, এ ব্যাপারে পুলিশ বাদী হয়ে বরগুনা থানায় তথ্যপ্রযুক্তি আইনে একটি মামলা করেছে।ৃ

Share Button


আজকের বার্তা

আগরপুর রোড, বরিশাল সদর-৮২০০

বার্তা বিভাগ : ০৪৩১-৬৩৯৫৪(১০৫)
ফোনঃ ০১৯১৬৫৮২৩৩৯ , ০১৬১১৫৩২৩৮১
ই-মেলঃ ajkerbarta@gmail.com

সামাজিক যোগাযোগ
Site Map
Show site map

© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত
প্রকাশকঃ কাজী মেহেরুন্নেসা বেগম
সম্পাদক ও প্রতিষ্ঠাতাঃ কাজী নাসির উদ্দিন বাবুল
Website Design and Developed by
logo

আজকের বার্তা কর্তৃক সর্বস্বত্ব সংরক্ষিত। অনুমতি ছাড়া এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা, ছবি ও বিষয়বস্তু অন্য কোথাও প্রকাশ করা বেআইনি।