আজকের বার্তা | logo

৫ই আশ্বিন, ১৪২৫ বঙ্গাব্দ | ২০শে সেপ্টেম্বর, ২০১৮ ইং

শিক্ষকের বিরুদ্ধে শিক্ষার্থীদের গণপিটুনির অভিযোগ

প্রকাশিত : এপ্রিল ২২, ২০১৮, ০০:৩৭

শিক্ষকের বিরুদ্ধে শিক্ষার্থীদের গণপিটুনির অভিযোগ

ঝালকাঠি প্রতিনিধি ॥  ঝালকাঠির টাইগার মাধ্যমিক বিদ্যালয়ের শিক্ষক মো. ইলিয়াছ হোসেনের বিরুদ্ধে শিক্ষার্থীদের বেত দিয়ে গণপিটুনির অভিযোগ পাওয়া গেছে। গতকাল শনিবার সকাল ১১টার দিকে বিদ্যালয়ে প্রথম সাময়িক পরীক্ষা চলাকালে এ ঘটনা ঘটে। প্রতিবাদে শিক্ষার্থীরা পরীক্ষা বর্জন করে বিক্ষোভ করে। শিক্ষার্থীরা জানায়, বিদ্যালয়ের শিক্ষার্থীদের প্রথম সময়িক পরীক্ষা শুরু হয়েছে। গতকাল শনিবার গণিত পরীক্ষার সময় দশম শ্রেণির ছাত্র নাজমুল পেছনে তাকালে খাতা নিয়ে যান শিক্ষক ইলিয়াছ হোসেন। খাতাটি চাইলে ওই শিক্ষার্থীকে অকথ্যভাষায় গালাগাল করেন শিক্ষক। অন্য শিক্ষার্থীরা এর প্রতিবাদ করলে পরীক্ষা কক্ষে অষ্টম, নবম ও দশম শ্রেণির প্রায় ২৫ জন শিক্ষার্থীকে বেত দিয়ে গণপিটুনি দেন ওই শিক্ষক। এ ঘটনায় শিক্ষার্থীরা পরীক্ষা কক্ষ থেকে বের হয়ে বিক্ষোভ করে। ওই শিক্ষকের অপসারণ চেয়ে নির্যাতনের বিচার দাবি করে তারা। বেতের পিটুনিতে আহতরা হল- দশম শ্রেণির ছাত্র মুবিন, মঈন, আজিম, সাব্বির, সাকিব, অষ্টম শ্রেণির ছাত্র সজিব, শামীম ও আসিবসহ ২৫ জন। শিক্ষার্থী মুবিন জানায়, ‘আমাদের মারধরের পরে শিক্ষক ইলিয়াছ হোসেন নানা ধরনের হুমকি দিচ্ছেন। আমরা যাতে আগামী এসএসসি পরীক্ষায় অংশ নিতে এবং ফরমপূরণ করতে না পারি তা দেখে নিবেন বলে হুমকি দেন তিনি।’ এ ব্যাপারে শিক্ষক মো. ইলিয়াছ হোসেন বলেন, ‘আমি পরীক্ষার হলে কোনো ছাত্রকে মারধর করিনি। আমার বিরুদ্ধে মিথ্যা অভিযোগ করা হচ্ছে।’ বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক একেএম শামসুদ্দোহা বলেন, ‘একটি ছেলের খাতা নিয়ে গিয়েছেন। ওকে মাত্র একটি পিটান দিয়েছেন। অন্য কাউকে মারেননি। শিক্ষার্থীরা আমার কাছে অভিযোগ দিতে পারতো, তাও দেয়নি। বরংঞ্চ কয়েকজন পরীক্ষার্থী ওয়াকআউট করেছে।

Share Button


আজকের বার্তা

আগরপুর রোড, বরিশাল সদর-৮২০০

বার্তা বিভাগ : ০৪৩১-৬৩৯৫৪(১০৫)
ফোনঃ ০১৯১৬৫৮২৩৩৯ , ০১৬১১৫৩২৩৮১
ই-মেলঃ ajkerbarta@gmail.com

সামাজিক যোগাযোগ
Site Map
Show site map

© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত
প্রকাশকঃ কাজী মেহেরুন্নেসা বেগম
সম্পাদক ও প্রতিষ্ঠাতাঃ কাজী নাসির উদ্দিন বাবুল
Website Design and Developed by
logo

আজকের বার্তা কর্তৃক সর্বস্বত্ব সংরক্ষিত। অনুমতি ছাড়া এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা, ছবি ও বিষয়বস্তু অন্য কোথাও প্রকাশ করা বেআইনি।