আজকের বার্তা | logo

৩রা শ্রাবণ, ১৪২৫ বঙ্গাব্দ | ১৮ই জুলাই, ২০১৮ ইং

মাছ বিক্রেতা নকিবের অত্যাচারে অতিষ্ঠ আমিরকুটিরবাসী

প্রকাশিত : এপ্রিল ১৫, ২০১৮, ২২:৪১

মাছ বিক্রেতা নকিবের অত্যাচারে অতিষ্ঠ আমিরকুটিরবাসী

অনলাইন সংরক্ষণ ।।।। ॥ এক সময়ের মাছ বিক্রেতা ক্ষমতাসীন দলের তোকমা লাগিয়ে নগরীতে চাঁদাবাজি করে আসছে। একাধিক অভিযোগের প্রেক্ষিতে ভূক্তভোগীসূত্র মতে জানা গেছে, বরিশাল নগরীর আমির কুটির এলাকার বাসিন্দা মৃত মানিক মিয়ার ছেলে নকিবুর রহমান নকিব( ৫০)নামের এক ব্যক্তি কয়েক বছর যাবৎ বিভিন্ন স্থানে চাঁদাবাজি করে কয়েক লক্ষাধিক টাকার মালিক বনে গেছে। আর একাজে সহযোগী হিসেবে সব সময় তার পাশে থাকে চিহ্নিত জামায়াত নেতা নকিবের তিন ভাই। সম্প্রতি আমিরকুটির এলাকায় এক প্রবাসী বসবাসের জন্য ৫ শাতাংশ জমি ক্রয় করলে তার নিকট চাঁদা দাবী করেন। প্রবাসী প্রশ্ন করলে নকিব রগচটাস্বরে বলে, এলাকায় জমি কিনতে হলে আমাকে চাঁদা দিতে হবে। গত বছর নভেম্বর মাসে ১৫ নং ওয়ার্ড কাউন্সিলর সৈয়দ জাকির হোসেনের জেলালের একান্ত সচিব সান্তর নিকট চাদা দাবির ঘটনায় থানায় লিখিত অভিযোগ করে। যাহার জিডি নং ৯১৫। একই এলাকার বাসিন্দা জুয়েল মাহমুদের জমি অবৈধভাবে দখল করতে গেলে গত ১২ই নভেম্বর ২০১৭ ইং তারিখে থানায় লিখিত অভিযোগ দাখিল করেন। এখানেই তার অপকর্ম’র শেষ নয়। খোঁজ নিয়ে জানা গেছে, গৌরনদীতে ঠিকাদারী কাজে চাঁদা চাইতে গিয়ে ইউএনও’র হস্তক্ষেপে কারাগারে যায় এই নকিব। শুধুই এলাকাবাসী নয়, এমনকি তার আপন বোনের সাথেও প্রতারণা করে বোনের সম্পত্তি দখল করে নেয়। পরবর্তিতে তাহার ভাগিনা তার নকিবের বিরুদ্ধে মামলা দায়ের করে। নকিবের নির্দেশে তারই ছোট ভাই প্রায় দেড় যুগ যাবত ছোবাহান মিয়া নামক এক ব্যক্তিকে জিম্মি করে ঘর দখল করে রেখেছে। মহানগর আ’লীগের যুগ্ম-সাধারন সম্পাদক সেরনিয়াবাদ সাদিক আব্দুল্লাহর নাম ভাঙিয়ে তিনি প্রকাশ্যেই এমন চাঁদাবাজি করে লক্ষাধীক টাকা লুট করে আসছেন বলে এলাকা সূত্রে জানা গেছে। নকিবুর রহমান নকিব বিভিন্ন সময়ে নগরীর খাল থেকে জ্বাল দিয়ে পুঁটি মাছ ধরে তা বাজারে বিক্রি করে জীবন যাপন করতো। পরবর্তীতে বাজারে মাছ বিক্রি করে কয়েক নেতাকর্মীদের সাথে সুসম্পর্ক গড়ে ওঠে। সে সুবাদে ক্ষমতাসীন দলে নিজের নাম লেখায় গত ২০০০ হাজার সালে। এরপরে কয়েক নেতার বাসায় মাছ সাপ্লাই দিয়ে ওয়ার্ড আ’লীগের অঙ্গসংগঠনে পদধারী নেতা বনে যায়। সাবেক নগর আ’লীগের সভাপতি প্রয়াত শওকত হোসেন হিরন ১৫ নং ওয়ার্ড যুবলীগের সাধারন সম্পাদক পদ দেয়া । পরবর্তীতে বিভিন্ন পুকুর লিজ নিয়ে মাছ চাষ করে ব্যবসা করে কিছুটা উন্নতি হয় তার। এরপরে হঠাৎ করেই ১৫ নং ওয়ার্ড কাউন্সিলর পদে নির্বাচনে অংশ নেয়। হাত পাখা মার্কাতে নির্বাচন করলেও পরিবার সূত্রে জানা যায়, ঘড়ের একমাত্র ফ্রীজ টিভি এমনকি স্ত্রীর স্বর্নালংকার পর্যন্ত বিক্রি করে নির্বাচন করে। কিন্তু এলাকায় তার সুনামের তুলনায় বিপরীতটাই বেশী পরিচিত ফলে জামানত হারায় নির্বাচনে। নির্বাচনে পরাজিত হওয়ার শোকে মানুষিক ভাবে ভেঙে বিতর্কিত সব কর্মকান্ডে লিপ্ত হতে থাকে বলেও জানায়। অপরদিকে আমিরকুটির এলাকায় জমি ক্রয় বিক্রয় হলেই নকিবের শকুনি থাবার হাত থেকে কেউ নিস্তার পায় না। এ ব্যাপারে ১৫ নং ওয়ার্ড আ’লীগের সভাপতি লিয়াকত হোসেন লাবু বলেন, তার এই কর্মকান্ডে দলের সুনাম ক্ষুন্ন হচ্ছে। বারংবার নকিবকে সংশোধন হতে বললেও শোধরায়নি নকিব।

Share Button


আজকের বার্তা

আগরপুর রোড, বরিশাল সদর-৮২০০

বার্তা বিভাগ : ০৪৩১-৬৩৯৫৪(১০৫)
ফোনঃ ০১৯১৬৫৮২৩৩৯ , ০১৬১১৫৩২৩৮১
ই-মেলঃ ajkerbarta@gmail.com

সামাজিক যোগাযোগ
Site Map
Show site map

© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত
প্রকাশকঃ কাজী মেহেরুন্নেসা বেগম
সম্পাদক ও প্রতিষ্ঠাতাঃ কাজী নাসির উদ্দিন বাবুল
Website Design and Developed by
logo

আজকের বার্তা কর্তৃক সর্বস্বত্ব সংরক্ষিত। অনুমতি ছাড়া এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা, ছবি ও বিষয়বস্তু অন্য কোথাও প্রকাশ করা বেআইনি।