আজকের বার্তা | logo

৪ঠা অগ্রহায়ণ, ১৪২৫ বঙ্গাব্দ | ১৮ই নভেম্বর, ২০১৮ ইং

বরিশাল শেবামেক’র ছাত্রীকে উত্ত্যক্ত, প্রতিবাদে বিক্ষোভ

প্রকাশিত : এপ্রিল ০৪, ২০১৮, ১৫:২৮

বরিশাল শেবামেক’র ছাত্রীকে উত্ত্যক্ত, প্রতিবাদে বিক্ষোভ

বরিশাল শেরে বাংলা মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালের এক ছাত্রীকে উত্ত্যক্ত করার প্রতিবাদে বিক্ষোভ করেছেন  শিক্ষার্থীরা। গতকাল মঙ্গলবার রাতে কলেজের প্রশাসন ভবনের পাশের সড়ক দিয়ে ছাত্রীনিবাসে যাওয়ার সময় ৪৫তম ব্যাচের এক শিক্ষার্থীকে মহেন্দ্র ভর্তি কিছু বখাটে উত্ত্যক্ত করে।

এ সময় ছাত্রীর চিৎকারে স্থানীয়রা ছুটে আসলে পালিয়ে যায় বখাটেরা। এরপর রাতেই এর প্রতিবাদে বিক্ষোভ করেন শিক্ষার্থীরা। পরে আজ বুধবার সকালে কলেজ অধ্যক্ষের কার্যালয় ঘেরাও করে তারা এর বিচার দাবি করে পুনরায় বিক্ষোভ করেন। এ সময় বিক্ষোভকারী শিক্ষার্থীরা ছাত্রীকে উত্ত্যক্ত করার সঙ্গে জড়িতদের গ্রেপ্তার করে আইনের আওতায় আনাসহ নিরাপত্তা সংশ্লিষ্ট পাঁচটি দাবি তুলেছেন।

দাবিগুলোর মধ্যে ক্যাম্পাসে সিসি ক্যামেরা স্থাপন, ক্যাম্পাসে প্রবেশের প্রতিটি ফটকে পকেট গেইট স্থাপন, মেয়েদের হোস্টেলের সামনে লোহার গেইট স্থাপন ও সার্বক্ষণিক পাহারার ব্যবস্থা অন্যতম।

ক্যাম্পাস সূত্রে জানা গেছে, মঙ্গলবার রাত ৮টার দিকে কলেজ ক্যাম্পাসের ভেতর প্রশাসনিক ভবনের পাশের সড়ক দিয়ে এক ছাত্রী হোস্টেলের দিকে যাচ্ছিলেন। এ সময় একটি চলমান মাহিন্দ্রতে থাকা কিছু বখাটে ওই ছাত্রীর সঙ্গে থাকা ব্যাগ ধরে টান দেয়।

একপর্যায়ে ছাত্রীর হাত ধরে টানাটানি করে তারা। পরে ছাত্রীর চিৎকারে স্থানীয়রা ছুটে আসলে মাহিন্দ্র ও মাহিন্দ্রর সঙ্গে আরো দুটি মোটরসাইকেলে থাকা বখাটেরা দ্রুত পালিয়ে যায়।

বিষয়টি জানাজানি হলে পুরো ক্যাম্পাসে শিক্ষার্থীদের মধ্যে ক্ষোভ সৃষ্টি হয়। পরে মঙ্গলবার রাত ১২টার দিকে কলেজ ক্যাম্পাসে মশাল জ্বালিয়ে বিক্ষোভ মিছিল করেন শিক্ষার্থীরা। মিছিলটি ক্যাম্পাসের বিভিন্ন সড়ক প্রদক্ষিণ করে হাসপাতালের পুলিশ ভবনের সামনে গিয়ে শেষ হয়। সেখানে অবস্থান নিয়ে পুলিশ সদস্যদের ব্যবহৃত আসবাবপত্র ভাঙচুরের চেষ্টা করেন শিক্ষার্থীরা।

খবর পেয়ে ঘটনাস্থলে গিয়ে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আনে কোতোয়ালি মডেল থানা পুলিশ।

শিক্ষার্থীদের দাবি, পুলিশ দায়িত্বে অবহেলা করা এমন অপ্রীতিকর ঘটনা ঘটেছে। আজ বুধবার ওই বখাটেদের গ্রেপ্তারসহ পাঁচটি দাবি নিয়ে বিক্ষোভ করেছেন শিক্ষার্থীরা। সকাল ১০টায় তারা কলেজ অধ্যক্ষের কার্যালয়ের সামনে অবস্থান নিয়ে বিক্ষোভ করেন। এরপর অধ্যক্ষ কার্যালয়ে আসলে তারা তাদের দাবিগুলো তুলে ধরেন। তিনি দাবিগুলো আলোচনা সাপেক্ষে পূরণ করার আশ্বাস দিলে তারা বিক্ষোভ কর্মসূচি স্থগিত করেন।

কোতোয়ালি মডেল থানার ওসি (তদন্ত) আতাউর রহমান বলেন, ‘রাতে কলেজ এবং হাসপাতালে কর্তব্যরত পুলিশ ছিল। আমরা তাদের কাছ থেকে পুরো বিষয়টি জানতে পেরেছি। এরপর দোষীকে খুঁজে বের করা হবে। আর কর্তব্যরত পুলিশের দায়িত্বে অবহেলা থাকলেও অবশ্যই তার বিরুদ্ধেও ব্যবস্থা নেওয়া হবে।

শেরে বাংলা মেডিক্যাল কলেজের অধ্যক্ষ অধ্যাপক ডা. ভাস্কর সাহা বলেন, ‘এক ছাত্রীকে উত্ত্যক্ত করার অভিযোগে বিক্ষোভ করেছে শির্ক্ষাথীরা। তারা দাবি তুলেছে পুলিশ প্রশাসনের নীরব ভূমিকায় ওই ছাত্রী উত্ত্যক্তের শিকার হয়েছে।’ তিনি বলেন, ‘শিক্ষার্থীরা ভুক্তভোগী ওই ছাত্রীর সঙ্গে অশোভন আচরণের ঘটনায় দোষীদের গ্রেপ্তার করে আইনের আওতায় আনা, ক্যাম্পাসে সিসি ক্যামেরা স্থাপন, ক্যাম্পাসে প্রবেশের প্রতিটি ফটকে পকেট গেইট স্থাপন, মেয়েদের হোস্টেলের সামনে লোহার গেইট স্থাপন ও সার্বক্ষণিক পাহারার ব্যবস্থা করার দাবি তুলেছে। আমরা এ দাবিগুলোর বিষয়ে কলেজ প্রশাসন, হাসপাতাল প্রশাসন ও পুলিশ প্রশাসনের সঙ্গে বৈঠক করছি। এরপর ব্যবস্থা নেব।

Share Button


আজকের বার্তা

আগরপুর রোড, বরিশাল সদর-৮২০০

বার্তা বিভাগ : ০৪৩১-৬৩৯৫৪(১০৫)
ফোনঃ ০১৯১৬৫৮২৩৩৯ , ০১৬১১৫৩২৩৮১
ই-মেলঃ ajkerbarta@gmail.com

সামাজিক যোগাযোগ
Site Map
Show site map

© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত
প্রকাশকঃ কাজী মেহেরুন্নেসা বেগম
সম্পাদক ও প্রতিষ্ঠাতাঃ কাজী নাসির উদ্দিন বাবুল
Website Design and Developed by
logo

আজকের বার্তা কর্তৃক সর্বস্বত্ব সংরক্ষিত। অনুমতি ছাড়া এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা, ছবি ও বিষয়বস্তু অন্য কোথাও প্রকাশ করা বেআইনি।