আজকের বার্তা | logo

৭ই অগ্রহায়ণ, ১৪২৫ বঙ্গাব্দ | ২০শে নভেম্বর, ২০১৮ ইং

নকলের সুযোগ না পেয়ে ম্যাজিস্ট্রেটের গাড়ি ভাঙচুর!

প্রকাশিত : এপ্রিল ০৭, ২০১৮, ২০:১৮

নকলের সুযোগ না পেয়ে ম্যাজিস্ট্রেটের গাড়ি ভাঙচুর!

অনলাইন ডেস্ক // চাঁদপুর সদর উপজেলার ফরক্কাবাদ ডিগ্রি কলেজের এইচএসসি পরীক্ষার্থীরা নকলের সুযোগ না পেয়ে ম্যাজিস্ট্রেটের গাড়ি ভাঙচুর করেছে বলে অভিযোগ উঠেছে। আজ শনিবার বেলা একটার দিকে ফরক্কাবাদ উচ্চবিদ্যালয় কেন্দ্রে এ ঘটনা ঘটে। তবে এতে কেউ হতাহত হয়নি। এ ঘটনায় জেলা প্রশাসনের পক্ষ থেকে তদন্ত কমিটি গঠনের নির্দেশ দেওয়া হয়েছে।

চলমান এইচএসসি পরীক্ষায় শনিবার ছিল ইংরেজি দ্বিতীয় পত্রের পরীক্ষা। ফরক্কাবাদ ডিগ্রি কলেজের পাশের ফরক্কাবাদ উচ্চবিদ্যালয় ছিল ওই কলেজের এইচএসসি পরীক্ষার্থীদের পরীক্ষার কেন্দ্র।

ওই কেন্দ্রে দায়িত্ব পালন করেন ম্যাজিস্ট্রেট ও চাঁদপুর সদর উপজেলার সহকারী কমিশনার (ভূমি) অভিষেক দাস। তিনি  বলেন, পরীক্ষা শুরুর পর থেকে বেলা একটা পর্যন্ত ওই কেন্দ্রে ছিলেন তিনি। এ কারণে পরীক্ষার্থীরা নকল করার সুযোগ পায়নি। এতে পরীক্ষার্থীরা ক্ষিপ্ত হয়ে পরীক্ষা শেষ হওয়ার পরপরই হল থেকে বের হয়ে তাঁকে বহনকারী সরকারি জিপ গাড়িটি ভাঙচুর করে। এ সময় দায়িত্বরত পুলিশ কাউকে আটক করতে পারেনি।

ফরক্কাবাদ উচ্চবিদ্যালয় কেন্দ্রের সচিব কামরুল হাসান বলেন, ম্যাজিস্ট্রেটের কড়াকড়ির কারণে কোনো পরীক্ষার্থী নকলের সুযোগ পায়নি। এই কারণেই পরীক্ষা শেষ হওয়ার পর পরীক্ষার্থীরা ক্ষিপ্ত হয়ে গাড়ি ভাঙচুর করে।

পুরান বাজার পুলিশ ফাঁড়ির ইনচার্জ উপপরিদর্শক (এসআই) জাহাঙ্গীর হোসেন বলেন, কেন্দ্রের সামনে উত্তেজিত শিক্ষার্থীরা এ ঘটনা ঘটালেও সেখানে কর্তব্যরত একজন পুলিশ সদস্যের পক্ষে কিছু করার ছিল না।

ফরক্কাবাদ ডিগ্রি কলেজের অধ্যক্ষ হাসান আহমেদের দাবি, শিক্ষার্থীরা নয়, অভিভাবকেরা ভাঙচুর চালিয়েছেন। তিনি প্রথম আলোকে বলেন, ‘আমার কলেজের সাড়ে তিন শ পরীক্ষার্থী ওই কেন্দ্রে পরীক্ষায় অংশ নিয়েছে। কিন্তু কর্তব্যরত ম্যাজিস্ট্রেট কেন্দ্রে সার্বক্ষণিক উপস্থিত থাকায় শিক্ষার্থীরা স্বাভাবিকভাবে পরীক্ষা দিতে পারেনি। এ কারণে হয়তো অভিভাবকেরা ক্ষুব্ধ হয়ে এই গাড়ি ভাঙচুর করে। তবে আমরা গাড়িটি মেরামত করে দেব।’

এদিকে খবর পেয়ে চাঁদপুর জেলা প্রশাসক (ডিসি) মো. মাজেদুর রহমান খান ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেন। চাঁদপুর সদর উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা (ইউএনও) কানিজ ফাতেমাকে তদন্ত কমিটি গঠনের নির্দেশ দিয়েছেন তিনি। একই সঙ্গে দোষী ব্যক্তিদের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নেওয়ারও নির্দেশ দিয়েছেন জেলা প্রশাসক।

জেলা পুলিশ সুপার (এসপি) শামসুন্নাহার প্রথম আলোকে বলেন, বিষয়টি তিনি জেনেছেন। এ ঘটনায় মামলা হলে আইনগত ব্যবস্থা নেওয়া হবে।

Share Button


আজকের বার্তা

আগরপুর রোড, বরিশাল সদর-৮২০০

বার্তা বিভাগ : ০৪৩১-৬৩৯৫৪(১০৫)
ফোনঃ ০১৯১৬৫৮২৩৩৯ , ০১৬১১৫৩২৩৮১
ই-মেলঃ ajkerbarta@gmail.com

সামাজিক যোগাযোগ
Site Map
Show site map

© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত
প্রকাশকঃ কাজী মেহেরুন্নেসা বেগম
সম্পাদক ও প্রতিষ্ঠাতাঃ কাজী নাসির উদ্দিন বাবুল
Website Design and Developed by
logo

আজকের বার্তা কর্তৃক সর্বস্বত্ব সংরক্ষিত। অনুমতি ছাড়া এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা, ছবি ও বিষয়বস্তু অন্য কোথাও প্রকাশ করা বেআইনি।