আজকের বার্তা | logo

৪ঠা অগ্রহায়ণ, ১৪২৫ বঙ্গাব্দ | ১৮ই নভেম্বর, ২০১৮ ইং

অন্ধকার জীবনের গল্প শোনালেন সানি!

প্রকাশিত : এপ্রিল ০২, ২০১৮, ২০:৫০

অন্ধকার জীবনের গল্প শোনালেন সানি!

অনলাইন ডেস্ক: ইতিমধ্যেই বলিউডে পায়ের তলার মাটি পোক্ত করে ফেলেছেন তিনি। অভিনয় করছেন চুটিয়ে। তিন সন্তানের মা হয়েছেন। তবুও তার অতীত পেশা এখনও যেন পিছু ছাড়ে না।

তিনি সানি লিওন। কোনও কিছুর বিনিময়েই সানির পর্ন তারকা ইমেজ যেন ভুলতে পারেন না দর্শকদের একটা বড় অংশ। আর এ জন্য ঘৃণার শিকারও হতে হয় তাকে।

তবে এর শুরুটা অনেক আগে। সেই ২১ বছর বয়সে। অনেকে ভাবেন, ভারতে আসার সিদ্ধান্ত নেওয়ার পরেই হয়তো সানিকে এই ধরনের পরিস্থিতির সম্মুখীন হতে হয়েছিল। তবে তা ঠিক নয়। সম্প্রতি সংবাদমাধ্যমে সানি নিজেই জানিয়েছেন সে কথা।

সানির কথায়, অনেকে ভাবেন, ভারতে আসার সিদ্ধান্ত নেওয়ার পরেই আমার সমালোচনা শুরু হয়। কিন্তু এটা ভুল ধারণা। ২১ বছর বয়সে প্রথম ঘৃণার শিকার হয়েছিলাম। ফলে সমালোচনার জন্য এই দেশ দায়ী, এমনটা নয়। দায়ী সাধারণ সমাজ।

সমালোচনার সময় সানি বরাবরই পাশে পেয়েছেন তার পরিবারকে। তার কথায়, আমাকে আর ভাইকে সব রকম নেগেটিভ বিষয় থেকে আড়াল করে রাখতেন পরিবারের সদস্যরা। কিন্তু ওই ২১ বছর বয়সে যখন আমাকে নিয়ে অনেকে খারাপ কথা বলতে শুরু করে, তখন সত্যিই মানসিক ভাবে ভেঙে পড়েছিলাম।

নিজে জীবনে অনেক খারাপ সময় দেখেছন। অনেক সমালোচনা শুনেছেন। কিন্তু সন্তানদের সে সব থেকে দূরে রাখতে চান সানি। তার কথায়, মা হিসেবে আমার সন্তানদের কেউ মানসিক বা শারীরিক ভাবে আঘাত করুক আমি কখনও চাইব না। আমি ঘৃণার শিকার হয়েছি। আমার সন্তানদের যেন তা সহ্য করতে না হয়।

সানি লিওনের বাস্তব জীবন এবার বড়পর্দাতেও দেখা যাবে। কানাডাবাসী মধ্যবিত্ত এক শিখ পরিবারের মেয়ে কী ভাবে অ্যাডাল্ট ইন্ডাস্ট্রিতে পেশা তৈরি করল এবং পরবর্তীকালে তার বলিউড জার্নিতে সবটাই দেখানো হবে ওই সিরিজে।-আনন্দবাজার

Share Button


আজকের বার্তা

আগরপুর রোড, বরিশাল সদর-৮২০০

বার্তা বিভাগ : ০৪৩১-৬৩৯৫৪(১০৫)
ফোনঃ ০১৯১৬৫৮২৩৩৯ , ০১৬১১৫৩২৩৮১
ই-মেলঃ ajkerbarta@gmail.com

সামাজিক যোগাযোগ
Site Map
Show site map

© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত
প্রকাশকঃ কাজী মেহেরুন্নেসা বেগম
সম্পাদক ও প্রতিষ্ঠাতাঃ কাজী নাসির উদ্দিন বাবুল
Website Design and Developed by
logo

আজকের বার্তা কর্তৃক সর্বস্বত্ব সংরক্ষিত। অনুমতি ছাড়া এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা, ছবি ও বিষয়বস্তু অন্য কোথাও প্রকাশ করা বেআইনি।