আজকের বার্তা | logo

৫ই কার্তিক, ১৪২৫ বঙ্গাব্দ | ১৯শে অক্টোবর, ২০১৮ ইং

সেই মডেলের বিরুদ্ধে অশ্লীলতার অভিযোগ, কী বলছেন অভিযুক্ত …

প্রকাশিত : মার্চ ০৩, ২০১৮, ০২:৩৮

সেই মডেলের বিরুদ্ধে অশ্লীলতার অভিযোগ, কী বলছেন অভিযুক্ত …

ভারতের কেরালা রাজ্য থেকে প্রকাশিত ম্যাগাজিন ‘গৃহলক্ষ্মী’র মডেল গিলু জোসেফের বিরুদ্ধে মামলা হয়েছে। কেরালার আইনজীবী বিনোদ ম্যাথু উইলসন সে রাজ্যের প্রধান বিচারপতির আদালতে মামলাটি করেছেন।

গৃহলক্ষ্মী ম্যাগাজিনের কাভার ফটোতে মডেল হয়েছেন গিলু জোসেফ। সেখানে দেখা যাচ্ছে এক শিশুকে বুকের দুধ খাওয়াচ্ছেন গিলু। অার কাভার ফটোর নিচে লেখা রয়েছে, ‘কেরালার মায়েদের বলছি, লজ্জা কীসের, আমরা বুকের দুধ খাওয়াতে চাই।’

আদালতে যে অভিযোগ করা হয়েছে, তাতে বলা হয়েছে ছবিটি অশ্লীল ও নারীদের পক্ষে অবমাননাকর। ইনডিসেন্ট রিপ্রেজেন্টেশন অব উইমেন (প্রহিবিশন) অ্যাক্ট, ১৯৮৬-এর ৩ ও ৪ নম্বর ধারা অনুযায়ী মডেলের শাস্তি হওয়া উচিত বলেও দাবি করা হয়েছে।

এ ব্যাপারে গিলু জোসেফ অবশ্য বলছেন, এই পত্রিকার প্রচ্ছদের জন্য মডেল হয়ে তিনি মোটেও অনুতপ্ত নন। তার মনে কোনো দ্বিধা ছিল না। কারণ তিনি মনে করেন, দুধ পান করানো একজন মায়ের কাছে সম্মানের ব্যাপার।

তিনি আরো বলেন, আমি সেটাই করেছি, যেটা আমি ঠিক মনে করেছি। আমি পুরো সফল না হলেও, আমার কোনো আক্ষেপ নেই। তিনি পরিবারের বিপক্ষে গিয়ে মডেল হয়েছেন বলেও জানান।

তার দাবি, এই ছবিকে যৌনতার চিহ্ন হিসেবে দেখলে সমস্যার ব্যাপার। এটা মহৎ উদ্দেশ্য নিয়ে করা। অথচ অনেকে এটাকে ভুল কাজ বলে কেন মনে করেন? সন্তানকে দুধ পান করালে কোন ভগবান রেগে যাবেন?

গৃহলক্ষ্মী পত্রিকার সম্পাদক বলছেন, জনপরিসরেও যে সন্তানকে দুধ পান করানোর প্রয়োজন আছে, সে ব্যাপারে জনসচেতনতা বাড়ানোর জন্যই এ ধরনের পদক্ষেপ নেওয়া হয়েছে।

তিনি আরো বলেন, একমাস আগের ঘটনা। একব্যক্তি ফেসবুকে তার স্ত্রীর ছবি প্রকাশ করে। যেখানে দেখা যায়, তার স্ত্রী শিশুকে দুধ পান করাচ্ছেন। তাদের উদ্দেশ্য ছিল এমন ছবি আপলোডের মাধ্যমে জনসচেতনতা সৃষ্টি করবেন। কিন্তু লোকজন বিষয়টি ভালোভাবে নেয়নি। নারী পুরুষ নির্বিশেষে সবাই ওই দম্পতিতে কটূক্তি করেছে।

সে কারণে আমাদের পত্রিকার কাভার ফটোতে এ ধরনের ছবি ছেপে ওই দম্পতিকে সাহসি পদক্ষেপের জন্য উৎসর্গ করার সিদ্ধান্ত গ্রহণ করি বলেও মন্তব্য করেন তিনি।

তিনি আরো বলেন, আমাদের দেশে বহু নারী গার্মেন্টে কাজ করেন। তাছাড়া গণপরিবহণেও চলাচল করেন। এদের একাংশ শাড়ি পরলেও বাকিরা অন্য পোশাক পরিধান করেন। কিন্তু রাস্তায় থাকা অবস্থায়ও তো সন্তানকে দুধ পান করানোর প্রয়োজন হয়।

তার পরেও অধিকাংশ নারী সন্তানকে দুধ পান করান না। কেবল শাড়ি পরা নারীরা জনপরিসরেও রাখঢাক করে সন্তানকে দুধ পান করাতে পারেন। কিন্তু জন্মের প্রথম ছয়মাস তো শিশুকে দুধ পান থেকে বিরত থাকার কোনো বিকল্পই নেই। সে কারণে আমাদের এই পদক্ষেপ বলেও মন্তব্য করেন তিনি।

সামাজিক যোগাযোগের মাধ্যমে ছবিটি পোস্ট করে বহু মানুষ এর সমর্থন জানিয়েছেন। তারা বলছেন, সন্তানকে দুধ পান করানোর ক্ষেত্রে অন্তত স্বাধীনতা থাকা দরকার। এ ধরনের পদক্ষেপকে তারা সাধুবাদও জানাচ্ছেন।

তবে, আবার এর বিরোধিতাও করছেন অনেকে। তারা ঝাল ঝাড়ছেন পত্রিকার সম্পাদকের ওপর। সস্তা জনপ্রিয়তার জন্যই কাভারে এ ধরনের আইটেম রাখা হয়েছে বলে মনে করছেন তারা।

Share Button


আজকের বার্তা

আগরপুর রোড, বরিশাল সদর-৮২০০

বার্তা বিভাগ : ০৪৩১-৬৩৯৫৪(১০৫)
ফোনঃ ০১৯১৬৫৮২৩৩৯ , ০১৬১১৫৩২৩৮১
ই-মেলঃ ajkerbarta@gmail.com

সামাজিক যোগাযোগ
Site Map
Show site map

© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত
প্রকাশকঃ কাজী মেহেরুন্নেসা বেগম
সম্পাদক ও প্রতিষ্ঠাতাঃ কাজী নাসির উদ্দিন বাবুল
Website Design and Developed by
logo

আজকের বার্তা কর্তৃক সর্বস্বত্ব সংরক্ষিত। অনুমতি ছাড়া এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা, ছবি ও বিষয়বস্তু অন্য কোথাও প্রকাশ করা বেআইনি।