আজকের বার্তা | logo

১০ই আশ্বিন, ১৪২৫ বঙ্গাব্দ | ২৪শে সেপ্টেম্বর, ২০১৮ ইং

পটুয়াখালী গরু চুরিতে ইউপি সদস্য!

প্রকাশিত : মার্চ ২৫, ২০১৮, ২২:১৯

পটুয়াখালী গরু চুরিতে ইউপি সদস্য!

বাউফল, প্রতিনিধি, পটুয়াখালী: ইউনিয়ন পরিষদের এক সদস্যের বিরুদ্ধে গরু চুরির অভিযোগ উঠেছে। বলা হচ্ছে, স্থানীয় এক শ্রমিকের সহায়তায় ওই ইউপি সদস্য ছয়টি গরু চুরি করেছেন। পুলিশ তাঁর সহযোগীকে আটক করেছে। উদ্ধার হওয়া গরুগুলো রাখা হয়েছে গ্রাম-পুলিশের জিম্মায়। এদিকে ঘটনার পর থেকে পলাতক রয়েছেন ওই ইউপি সদস্য।

পটুয়াখালীর বাউফল উপজেলার চন্দ্রদ্বীপ ইউনিয়নে গতকাল শনিবার গরু চুরির ঘটনা ঘটেছে। চুরির অভিযোগে আটক ব্যক্তির কাছ থেকে সন্ধান পাওয়া গেছে চুরি যাওয়া আরও ছয়টি গরুর।

আটক ব্যক্তি হলেন মো. ইউনুচ (৪৫)। বাড়ি উপজেলার দাশপাড়া ইউনিয়নের চর আলগি গ্রামে। তিনি চন্দ্রদ্বীপ ইউনিয়নের খেয়াঘাট এলাকায় শ্রমিকের কাজ করেন।

চুরির অভিযোগ উঠেছে যে জনপ্রতিনিধির বিরুদ্ধে, তিনি হলেন মো. শাহাবুদ্দিন ব্যাপারী (৩৭)। তিনি চন্দ্রদ্বীপ ইউনিয়ন পরিষদের (ইউপি) ৬ নম্বর ওয়ার্ডের ইউপি সদস্য।

প্রত্যক্ষদর্শী কয়েকজনের সঙ্গে কথা বলে জানা গেছে, ইউনুচকে আটকের পরে তাঁর স্বীকারোক্তি অনুযায়ী আরও ছয়টি চোরাই গরু উদ্ধার করা হয়। পরে এসব গরুসহ আটক ইউনুচকে ওই রাতেই ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যানের (ইউপি) কাছে সোপর্দ করা হয়।

আটক ইউনুচের বরাত দিয়ে ইউপি চেয়ারম্যান আলকাচ মোল্লা ঘটনার সত্যতা স্বীকার করে বলেন, গতকাল রাতে ইউপি সদস্য শাহাবুদ্দিন তাঁকে (ইউনুচ) ডেকে নিয়ে যান। রাত সোয়া দশটার দিকে ডিয়ারা কচুয়া গ্রামের ইউনুচ জমাদ্দারের (৪৮) গোয়ালঘর থেকে একটি গরু চুরি করে নিয়ে যাচ্ছিলেন তিনি ও শাহাবুদ্দিন। ওই সময় গরুর মালিক ইউনুচ জমাদ্দার টের পেয়ে চিৎকার শুরু করলে স্থানীয় লোকজন এসে হাতেনাতে ইউনুচকে ধরে ফেলে। ততক্ষণে শাহাবুদ্দিন পালিয়ে যান। তবে পালিয়ে যাওয়ার সময় তাঁর ব্যবহৃত মুঠোফোনটি পড়ে যায়; যা পেয়ে স্থানীয় লোকজন তাঁর (চেয়ারম্যান) কাছে জমা দেন। পরে খোঁজ পাওয়া যায় ওই মুঠোফোনটি শাহাবুদ্দিনের।

আজ রোববার দুপুরে ইউপি চেয়ারম্যানের কাছ থেকে ইউনুচকে বাউফল থানা-পুলিশ নিয়ে যায়। পুলিশ উদ্ধার হওয়া ছয়টি গরু ৬ নম্বর ওয়ার্ডের গ্রাম-পুলিশ মো. হাবিবুর রহমানের জিম্মায় রেখে যায়।

বাউফল থানার উপপরিদর্শক কবির হোসেন বলেন, প্রাথমিক তদন্তে গত রাতের (শনিবার) চুরির ঘটনার সঙ্গে ইউনুচ ও ইউপি সদস্য শাহাবুদ্দিনের জড়িত থাকার প্রমাণ পাওয়া গেছে। শাহাবুদ্দিনের মুঠোফোন জব্দ করা হয়েছে। আর ওই ছয় গরু চুরির সঙ্গে এই দুজন ছাড়া অন্য কেউ জড়িত কি না, তা খতিয়ে দেখা হচ্ছে। এ ঘটনায় মামলা প্রক্রিয়াধীন বলে তিনি জানান।

Share Button


আজকের বার্তা

আগরপুর রোড, বরিশাল সদর-৮২০০

বার্তা বিভাগ : ০৪৩১-৬৩৯৫৪(১০৫)
ফোনঃ ০১৯১৬৫৮২৩৩৯ , ০১৬১১৫৩২৩৮১
ই-মেলঃ ajkerbarta@gmail.com

সামাজিক যোগাযোগ
Site Map
Show site map

© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত
প্রকাশকঃ কাজী মেহেরুন্নেসা বেগম
সম্পাদক ও প্রতিষ্ঠাতাঃ কাজী নাসির উদ্দিন বাবুল
Website Design and Developed by
logo

আজকের বার্তা কর্তৃক সর্বস্বত্ব সংরক্ষিত। অনুমতি ছাড়া এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা, ছবি ও বিষয়বস্তু অন্য কোথাও প্রকাশ করা বেআইনি।