আজকের বার্তা | logo

১লা পৌষ, ১৪২৫ বঙ্গাব্দ | ১৫ই ডিসেম্বর, ২০১৮ ইং

নতুন চেয়ারম্যান হিসেবে আলোচনায় ৩ শিক্ষাবিদ: বরিশাল শিক্ষা বোর্ড

প্রকাশিত : মার্চ ২৫, ২০১৮, ০১:৩৪

নতুন চেয়ারম্যান হিসেবে আলোচনায় ৩ শিক্ষাবিদ: বরিশাল শিক্ষা বোর্ড

স্টাফ রিপোর্টার ॥ দক্ষিণাঞ্চলে শিক্ষা সেক্টরের কেন্দ্রবিন্দু বরিশাল শিক্ষা বোর্ডের পূর্ণাঙ্গ চেয়ারম্যান পদটি শূন্য হয়েছে গতকাল শনিবার। বর্তমানে ভারপ্রাপ্ত চেয়ারম্যান হিসেবে দায়িত্ব পালন করছেন বোর্ডের সচিব। নতুন চেয়ারম্যান হিসেবে কে দায়িত্ব পাচ্ছেন এ নিয়ে নানা গুঞ্জন ছড়িয়ে পড়েছে। চেয়ারম্যান পদ পেতে হাফ ডজন শিক্ষাবিদ সরকারের উচ্চ পর্যায়ে লবিং করছেন। তবে এর মধ্যে আলোচনার শীর্ষে রয়েছেন বরিশালের ৩ শিক্ষাবিদ। শিক্ষামন্ত্রণালয়ের দায়িত্বশীল একটি সূত্র জানিয়েছে, ইতোমধ্যে প্রধানমন্ত্রীর কার্যালয়ে একজনের প্রস্তাবিত ফাইল পৌঁছেছে। সংশ্লিষ্ট তথ্য মতে, বরিশাল শিক্ষা বোর্ডের নতুন চেয়ারম্যান পদ প্রত্যাশীরা হচ্ছেন- বোর্ডের ভারপ্রাপ্ত চেয়ারম্যান প্রফেসর বিপ্লব কুমার ভট্টাচার্য্য, মাধ্যমিক ও উচ্চ শিক্ষা বরিশাল অঞ্চলের পরিচালক প্রফেসর মোহাম্মদ ইউনুস, সরকারি মহিলা কলেজের অধ্যক্ষ প্রফেসর আ: মোতালেব হাওলাদার, সরকারি বিএম কলেজ উপাধ্যক্ষ প্রফেসর স্বপন কুমার পাল, সরকারি বরিশাল কলেজ অধ্যক্ষ প্রফেসর অলিউল ইসলাম এবং সরকারি হাতেম আলী কলেজ অধ্যক্ষ প্রফেসর সচিন কুমার রায়। এর মধ্যে প্রথম ৩ জনের নাম জোড়েসোড়ে শোনা যাচ্ছে। বরিশাল শিক্ষা বোর্ডের ভারপ্রাপ্ত চেয়ারম্যান প্রফেসর বিপ্লব কুমার ভট্টাচার্য্য বর্তমানে একই বোর্ডের সচিব হিসেবে কর্মরত আছেন। ৭ম বিসিএস এর মধ্যে জ্যেষ্ঠ এই শিক্ষাবিদ এর আগে অক্সফোর্ড খ্যাত বিএম কলেজের পরিসংখ্যান বিভাগের বিভাগীয় প্রধান হিসেবে দীর্ঘ বছর দায়িত্ব পালন করেছেন। কলেজে অধ্যাপনাকালে ছাত্র-শিক্ষকের কাছে বেশ জনপ্রিয় ছিলেন প্রথিতযশা এ শিক্ষাবিদ- এমনটাই জানিয়েছেন তার সহকর্মীরা। জানতে চাইলে প্রফেসর বিপ্লব কুমার ভট্টাচার্য্য বলেন, চেয়ারম্যান কে হবেন তা সরকারের সিদ্ধান্তের উপর নির্ভর করে। তবে সুযোগ পেলে এ অঞ্চলে শিক্ষার প্রসার ঘটাতে সর্বাত্মক চেষ্টা চালাবেন তিনি। প্রফেসর মোহাম্মদ ইউনুস মাধ্যমিক ও উচ্চ শিক্ষা বরিশাল অঞ্চলের পরিচালক এর দায়িত্বে আছেন। এর আগে বিএম কলেজের সমাজবিজ্ঞান বিভাগের বিভাগীয় প্রধান ছিলেন। কলেজে অধ্যাপনাকালে সকলের কাছে গ্রহণযোগ্য ছিলেন ৯ম বিসিএস এর এই শিক্ষাবিদ। এ প্রসঙ্গে প্রফেসর মোহাম্মদ ইউনুস বলেন, তিনি ঢাকায় জরুরি সভায় রয়েছেন। তার পক্ষে এই মুহূর্তে কথা বলা সম্ভব হচ্ছে না। প্রফেসর মোতালেব হাওলাদার বর্তমানে সরকারি মহিলা কলেজের অধ্যক্ষ। আত্মীকৃত হিসেবে তিনি এর আগে বিএম কলেজের অধ্যাপক এবং শিক্ষা বোর্ডের সচিব হিসেবে দায়িত্ব পালন করেছেন। এ প্রসঙ্গে জানতে প্রফেসর মোতালেব হাওলাদারকে একাধিকবার ফোন দেয়া হলেও তিনি রিসিভ করেননি। জানা গেছে, এই ৩ শিক্ষাবিদ বরিশাল শিক্ষা বোর্ডের চেয়ারম্যান হতে জোর লবিং চালাচ্ছেন। স্থানীয় শীর্ষ রাজনৈতিক নেতারাও কারো কারো পক্ষে সুপারিশ করেছেন। শিক্ষা মন্ত্রণালয়ের দায়িত্বশীল এক কর্মকর্তা জানিয়েছেন, ওই ৩ জনের মধ্যে ইতোমধ্যে নতুন চেয়ারম্যান হিসেবে সিনিয়র একজনের নামের ফাইল প্রস্তাব আকারে প্রধানমন্ত্রীর কার্যালয়ে পৌঁছেছে। শিক্ষামন্ত্রীও তাতে ইতিবাচক মনোভাব দেখিয়েছেন। এ নিয়ে সরকারে উচ্চ পর্যায়ে কাজ চলছে। অপর ৩ জনের মধ্যে প্রফেসর স্বপন কুমার পালও তদবির করে যাচ্ছেন। প্রফেসর অলিউল ইসলাম এ বছরই অবসরে যাচ্ছেন। প্রফেসর সচিন কুমার রায় ‘বয়স কমানো’ নিয়ে সমালোচনায় পড়েছেন। এদিকে বরিশাল শিক্ষা বোর্ডের নতুন চেয়ারম্যান হিসেবে ব্যক্তি নির্বাচনে নানা মত দিয়েছেন সংশ্লিষ্টরা। বেসরকারি শিক্ষক-কর্মচারী সমিতির বরিশাল বিভাগীয় আহবায়ক অধ্যক্ষ মহসিন উল ইসলাম হাবুল বলেন, শিক্ষক ও শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানবান্ধব স্বচ্ছ এবং সৎ ব্যক্তি বোর্ডের চেয়ারম্যান হবেন এমনটাই প্রত্যাশা করেন। এক্ষেত্রে সরকারের জ্যেষ্ঠতা অনুসরণ করা উচিত। বিসিএস সাধারণ শিক্ষা সমিতির বরিশালের জেলা সম্পাদক সহযোগী অধ্যাপক আক্তারুজ্জামান খান বলেন, দক্ষিণাঞ্চলের গুণগত শিক্ষার জন্য একজন যোগ্য বোর্ড চেয়ারম্যান দরকার। তিনি বলেন, চাকরিতে জ্যেষ্ঠতার নিয়ম বজায় না থাকলে বিশৃংখলা দেখা দেয়। শিক্ষা ক্যাডারে ৭ম বিসিএস হচ্ছে জ্যেষ্ঠতম। বিসিএস সাধারণ শিক্ষা সমিতির প্রত্যাশা, শিক্ষা ক্যাডারের সিনিয়রিটি ধরে বোর্ডে চেয়ারম্যান পদায়ন করা হবে।

 

Share Button


আজকের বার্তা

আগরপুর রোড, বরিশাল সদর-৮২০০

বার্তা বিভাগ : ০৪৩১-৬৩৯৫৪(১০৫)
ফোনঃ ০১৯১৬৫৮২৩৩৯ , ০১৬১১৫৩২৩৮১
ই-মেলঃ ajkerbarta@gmail.com

সামাজিক যোগাযোগ
Site Map
Show site map

© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত
প্রকাশকঃ কাজী মেহেরুন্নেসা বেগম
সম্পাদক ও প্রতিষ্ঠাতাঃ কাজী নাসির উদ্দিন বাবুল
Website Design and Developed by
logo

আজকের বার্তা কর্তৃক সর্বস্বত্ব সংরক্ষিত। অনুমতি ছাড়া এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা, ছবি ও বিষয়বস্তু অন্য কোথাও প্রকাশ করা বেআইনি।