আজকের বার্তা | logo

৫ই অগ্রহায়ণ, ১৪২৫ বঙ্গাব্দ | ১৯শে নভেম্বর, ২০১৮ ইং

নগরীতে স্কুল ছাত্রীকে ধর্ষণের পর হত্যাঃ ঘাতকের স্বীকারোক্তি

প্রকাশিত : মার্চ ১৫, ২০১৮, ০০:৫৮

নগরীতে স্কুল ছাত্রীকে ধর্ষণের পর হত্যাঃ ঘাতকের স্বীকারোক্তি

স্টাফ রিপোর্টার ॥ বরিশালে তৃতীয় শ্রেণির ছাত্রী সীমা আক্তারকে ধর্ষণের পর হত্যা করেছেন তিন সন্তানের জনক আবুল কালাম কালু (৩৫)। হত্যার কথা স্বীকার করে গতকাল বুধবার দুপুরে তিনি জুডিশিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট আদালতে জবানবন্দি দেন। এর আগে গতকাল বেলা ১২টায় কালুকে সাংবাদিকদের সামনে উপস্থিত রেখে সংবাদ সম্মেলন করেন মেট্রোপলিটন পুলিশ কমিশনার এসএম রুহুল আমিন। এদিকে সীমা হত্যার বিচার দাবিতে বিক্ষোভ ও মানববন্ধন করেছে তার সহপাঠীরা। নিহত সীমা আক্তার বরিশাল নগরী সংলগ্ন গণপাড়া গ্রামের আব্দুল জব্বারের মেয়ে ও পূর্ব গণপাড়া সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের তৃতীয় শ্রেণির ছাত্রী ছিল। ঘাতক আবুল কালাম পেশায় ট্রাক চালকের সহকারী (হেলপার)। গত রোববার বিদ্যালয় থেকে নিখোঁজ হওয়ার পর মঙ্গলবার দুপুরে বিদ্যালয়ের অদূরে একটি কবরস্থানে সীমার বস্তাবন্দী লাশ পাওয়া যায়। মঙ্গলবার রাতে বিমানবন্দর থানা পুলিশ সন্দেহজনকভাবে বিদ্যালয় এলাকার বাসিন্দা কালুকে গ্রেপ্তার করে। এর প্রেক্ষিতে গতকাল সংবাদ সম্মেলনে পুলিশ কমিশনার এসএম রুহুল আমিন ঘাতক আবুল কালাম কালুর স্বীকারোক্তির বরাত দিয়ে জানান, বিদ্যালয়ের টয়লেট ব্যবহার অনুপযোগী হওয়ায় সীমা রোববার দুপুরে বিদ্যালয় সংলগ্ন কালুর বাড়িতে টয়লেটে যায়। স্ত্রী-সন্তান বেড়াতে যাওয়ায় কালু ওই সময়ে বাড়িতে একা ছিলেন। টয়লেট থেকে বের হওয়ার পর তিনি সীমাকে ঘরের মধ্যে নিয়ে মুখে তোয়ালে চেপে ধর্ষণ করেন। এ ঘটনা প্রকাশের আশংকায় সীমাকে শ্বাসরোধ করে হত্যা করেন কালু। ওই রাতেই লাশ বস্তাবন্দী করে কালু তার বাড়ির অদূরে হালিম মাস্টারের বাড়ির প্রবেশ পথে কবরস্থানে ফেলে রেখে যান। পুলিশ কমিশনার জানান, লাশ উদ্ধারের সময় সীমার শরীরে স্কুলের পোশাক থাকলেও পাজামা ছিল না। কালুর বাসায় একটি স্যান্ডেল দেখে পুলিশের সন্দেহ দৃঢ় হয়। তাছাড়া তড়িঘড়ি করে লাশ বস্তায় ভরার সময় ভুলে পাজামা পরানো হয়নি। পরে কালুর দেখানো অনুযায়ী বাড়ির পেছনে পুকুরের পানির নিচে লুকিয়ে রাখা পাজামা পুলিশ উদ্ধার করেছে। এদিকে ঘাতক গ্রেপ্তার ও স্বীকারোক্তির পর আবুল কালাম কালুকে আসামি করে বিমানবন্দর থানায় হত্যা মামলা দায়ের করেছেন সীমার মা মাহমুদা বেগম। ঘাতকের ফাঁসির দাবিতে গতকাল বুধবার বিদ্যালয়ের ছাত্র-ছাত্রী ও স্বজনরা বিমানবন্দর থানার সামনে মানববন্ধন করেছেন।

Share Button


আজকের বার্তা

আগরপুর রোড, বরিশাল সদর-৮২০০

বার্তা বিভাগ : ০৪৩১-৬৩৯৫৪(১০৫)
ফোনঃ ০১৯১৬৫৮২৩৩৯ , ০১৬১১৫৩২৩৮১
ই-মেলঃ ajkerbarta@gmail.com

সামাজিক যোগাযোগ
Site Map
Show site map

© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত
প্রকাশকঃ কাজী মেহেরুন্নেসা বেগম
সম্পাদক ও প্রতিষ্ঠাতাঃ কাজী নাসির উদ্দিন বাবুল
Website Design and Developed by
logo

আজকের বার্তা কর্তৃক সর্বস্বত্ব সংরক্ষিত। অনুমতি ছাড়া এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা, ছবি ও বিষয়বস্তু অন্য কোথাও প্রকাশ করা বেআইনি।