আজকের বার্তা | logo

৮ই আশ্বিন, ১৪২৫ বঙ্গাব্দ | ২৩শে সেপ্টেম্বর, ২০১৮ ইং

৩ যুগ পর মাকে ফিরে পেল দুই ভাই‌!

প্রকাশিত : ফেব্রুয়ারি ২৭, ২০১৮, ১৩:১৩

৩ যুগ পর মাকে ফিরে পেল দুই ভাই‌!

অনলাইন ডেস্ক: পৃথিবীতে সন্তানের কাছে সবচেয়ে আপনজন মা। কিন্তু বিধাতার ইচ্ছেতে সেই মাকে ৩ যুগ আগেই হারিয়ে ফেলেন কলকাতার শ্রীধরপুরের বাসিন্দা শেখ মুস্তাফা ও শেখ মুরতাজা।

ভারতীয় গণমাধ্যম সূত্রে জানা যায়, প্রায় ৩৫ বছর আগে সংসারের স্বচ্ছলতা ফেরাতে দিল্লিতে গিয়েছিলেন তাদের মা। কিন্তু পথ হারিয়ে দিল্লির বদলে তিনি চলে যান রাজস্থানের আজমীর শরীফে।

অবশেষে কলকাতার মিশনারিজ অব চ্যারিটির উদ্যোগে নিজের দুই ছেলের কাছে ফিরলেন নিখোঁজ মাজেদা বিবি।

ভারতীয় গণমাধ্যমের খবর, শ্রীধরপুর গ্রামের বাসিন্দা মাজেদার স্বামী শেখ ইয়াকুব পেশায় শ্রমিক ছিলেন। পাড়ার কয়েকজন বাসিন্দার সঙ্গে দিল্লিতে গিয়ে তিনি কাজ করতেন। দুই সন্তানকে নিয়ে বাড়িতেই থাকতেন মাজেদা। কিন্তু আর্থিক অনটনে একসময় তিনিও দিল্লি যাওয়ার পরিকল্পনা করেছিলেন। কিন্তু হাওড়া থেকে ভুল ট্রেনে উঠে তিনি রাজস্থানে পৌঁছান।

ভাষাগত সমস্যা ও বিভিন্ন কারণে মাজেদার আর বাড়ি ফেরা হয়নি। আজমির শরিফে তিনি ভিক্ষাবৃত্তি করে দিন কাটাতেন। বছর ছয়েক আগে তাকে অসুস্থ অবস্থায় উদ্ধার করেন স্থানীয় মিশনারিজ অব চ্যারিটির সদস্যরা। চিকিৎসায় মাজেদা সুস্থ হলেও নিজের পরিচয় ও ঠিকানা বলতে পারেননি। তবে বাংলা ভাষায় কথা বলায় তাকে কলকাতার মিশনারিজ অব চ্যারিটির আশ্রমে পাঠানো হয়।

সম্প্রতি মাজেদা নিজের পরিচয় জানান। এর পরই মিশনারিজ অব চ্যারিটির পক্ষ থেকে নন্দকুমার থানার পুলিশের সঙ্গে যোগাযোগ করা হয়। সোমবার বিকালে মাজেদাকে নিয়ে নন্দকুমার থানায় যান তারা। পুলিশের সহায়তায় দুই ছেলের হাতে তুলে দেয়া হয় ওই বৃদ্ধাকে। মাকে ফিরে পেয়ে অনেক খুশি দুই ছেলে শেখ মুস্তাফা ও শেখ মুরতাজা।

Share Button


আজকের বার্তা

আগরপুর রোড, বরিশাল সদর-৮২০০

বার্তা বিভাগ : ০৪৩১-৬৩৯৫৪(১০৫)
ফোনঃ ০১৯১৬৫৮২৩৩৯ , ০১৬১১৫৩২৩৮১
ই-মেলঃ ajkerbarta@gmail.com

সামাজিক যোগাযোগ
Site Map
Show site map

© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত
প্রকাশকঃ কাজী মেহেরুন্নেসা বেগম
সম্পাদক ও প্রতিষ্ঠাতাঃ কাজী নাসির উদ্দিন বাবুল
Website Design and Developed by
logo

আজকের বার্তা কর্তৃক সর্বস্বত্ব সংরক্ষিত। অনুমতি ছাড়া এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা, ছবি ও বিষয়বস্তু অন্য কোথাও প্রকাশ করা বেআইনি।