আজকের বার্তা | logo

৩০শে কার্তিক, ১৪২৫ বঙ্গাব্দ | ১৪ই নভেম্বর, ২০১৮ ইং

২৬৫ নারীকে যৌন হয়রানি করেছেন চিকিৎসক!…অতঃপর

প্রকাশিত : ফেব্রুয়ারি ০১, ২০১৮, ১২:১৭

২৬৫ নারীকে যৌন হয়রানি করেছেন চিকিৎসক!…অতঃপর

অনলাইন ডেস্ক: যুক্তরাষ্ট্রের জিমন্যাস্টিকস দলের সাবেক চিকিৎসক ল্যারি নাসের ২৬৫ জন নারী অ্যাথলেটকে যৌন হয়রানি করেছেন। ৫৪ বছর বয়সী ল্যারি নাসেরের বিরুদ্ধে ১৬০ জন নারী এরই মধ্যে সাক্ষ্য দিয়েছেন। নাসেরকে আদালত ৪০ থেকে ১৭৫ বছর পর্যন্ত কারাদণ্ড দিয়েছেন।

এছাড়া শিশুর আপত্তিকর ছবি সংরক্ষণ এবং জিমন্যাস্টদের হয়রানি করার অভিযোগে এর মধ্যেই অবশ্য ল্যারি নাসেরের ৬০ বছরের কারাদণ্ড হয়েছে যুক্তরাষ্ট্রের আদালতে।এখন তার যে বিচার চলছে সেখানে মূল অভিযোগ হচ্ছে, মিশিগানের একটি জিমন্যাস্টিকস ক্লাবে তিনি রোগীদের যৌন হয়রানি করেছেন।

মিশিগান ইউনিভার্সিটির সাবেক চিকিৎসক ল্যারি নাসের গত নভেম্বর মাসে চলমান কিছু মামলার শুনানির সময় নিজের দোষ স্বীকার করে নিয়েছেন।তার কাছে যারা যৌন হেনস্থার শিকার হয়েছেন তাদের মধ্যে ১৩ থেকে ১৬ বছর বয়সীরাও রয়েছে।

ল্যারি নাসেরের হাতে যৌন হেনস্তার শিকার হওয়া ২৬৫ নারীর পরিচয় নিশ্চিত হওয়া গেছে। নাসেরের এই বিচার ইন্টারনেট ও বিভিন্ন সামাজিক যোগাযোগের মাধ্যমে সরাসরি প্রচার করা হচ্ছে। তার হাতে যৌন হয়রানির শিকার নারীরা যাতে এ শুনানিতে সাক্ষ্য দিতে পারে সেজন্যই এ আয়োজন।

                                             সাক্ষ্য দিচ্ছেন জেসিকা টমাসশো

১৭ বছর বয়সী জেসিকা টমাসশো আদালতকে বলেছেন, আমার বয়স যখন নয় বছর তখন সে প্রথমবারের মতো আমার উপর যৌন হামলা চালিয়েছিল। ল্যারি নাসের নিজের লালসা চরিতার্থ করার জন্য এ ধরনের কাজ করতো।

টমাসশো’র বড় বোনের উপরও ল্যারি নাসের যৌন হামলা চালিয়েছিল। এখন চলমান অভিযোগের শুনানি শেষ হলে ল্যারি নাসেরের আরো ২৫ থেকে ৪০ পর্যন্ত কারাদণ্ড যোগ হতে পারে। সূত্র : বিবিসি বাংলা

Share Button


আজকের বার্তা

আগরপুর রোড, বরিশাল সদর-৮২০০

বার্তা বিভাগ : ০৪৩১-৬৩৯৫৪(১০৫)
ফোনঃ ০১৯১৬৫৮২৩৩৯ , ০১৬১১৫৩২৩৮১
ই-মেলঃ ajkerbarta@gmail.com

সামাজিক যোগাযোগ
Site Map
Show site map

© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত
প্রকাশকঃ কাজী মেহেরুন্নেসা বেগম
সম্পাদক ও প্রতিষ্ঠাতাঃ কাজী নাসির উদ্দিন বাবুল
Website Design and Developed by
logo

আজকের বার্তা কর্তৃক সর্বস্বত্ব সংরক্ষিত। অনুমতি ছাড়া এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা, ছবি ও বিষয়বস্তু অন্য কোথাও প্রকাশ করা বেআইনি।