আজকের বার্তা | logo

৭ই আশ্বিন, ১৪২৫ বঙ্গাব্দ | ২২শে সেপ্টেম্বর, ২০১৮ ইং

ল্লী বিদ্যুতের ৩১ হাজার গ্রাহকের জন্য একজন ক্যাশিয়ার: চরম ভোগান্তি

প্রকাশিত : ফেব্রুয়ারি ০৬, ২০১৮, ০১:৪৫

ল্লী বিদ্যুতের ৩১ হাজার গ্রাহকের জন্য একজন ক্যাশিয়ার: চরম ভোগান্তি

কলাপাড়া প্রতিনিধি ॥ কলাপাড়া পল্লী বিদ্যুৎ সমিতির ৩১ হাজার গ্রাহকের বিল জমা নেয়ার সেবায় নিয়োজিত রয়েছেন মাত্র একজন ক্যাশিয়ার। ফলে লাইনে দাঁড়িয়ে ভোগান্তি আর বিড়ম্বনা পোহাতে হয় গ্রাহকের। নিত্যদিন এমন ভোগান্তির কবলে পড়ছেন গ্রাহকরা। গ্রাহকের সেবার মানোন্নয়ন তথা ভোগান্তি লাঘবে জনবল বৃদ্ধি করার কোন উদ্যোগ দীর্ঘদিনেও নেয়া হয়নি। জানা গেছে, কলাপাড়া পল্লী বিদ্যুৎ সমিতির আওতায় কলাপাড়া, মহিপুর, তালতলী ও আমতলীর আংশিকসহ মোট ২২টি ইউনিয়নের গ্রাহক সংখ্যা ৩১ হাজার ৯শ’ ২৭ জন। এ পরিমাণ গ্রাহকের বিল পরিশোধে রয়েছেন শুধুমাত্র একজন ক্যাশিয়ার। ফলে অফিসে গিয়ে বিল পরিশোধ করতে গিয়ে ভোগান্তিতে পড়ছেন গ্রাহকরা। ঘণ্টার পর ঘণ্টা দাঁড়িয়ে থাকতে হয়। ধৈর্যের বাঁধ হারিয়ে অনেক সময় গ্রাহকরা বচসায় লিপ্ত হন। তারপরও লোকবল বৃদ্ধির কোন পদক্ষেপ আজ অবধি নেয়নি ঊর্ধ্বতন কর্তৃপক্ষ। তবে শাহজালাল ইসলামী ব্যাংক, ইউনিয়ন তথ্য সেবা, এজেন্ট ব্যাংকিং, টেলিটকের মাধ্যমেও বিদ্যুৎ বিল পরিশোধের সুযোগ রয়েছে। কিন্তু ব্যাপক প্রচারণা না থাকায় শত শত গ্রাহক এখনও অফিসের দ্বারস্থ হচ্ছেন। বিশেষ করে গ্রামের অসচেতন গ্রাহকরা অফিস ছাড়া বিল জমা দেন না। গ্রাহকদের দাবি, অন্তত আরও একজন ক্যশিয়ার নিয়োগ দিয়ে গ্রাহক সেবার মানোন্নয়ন করা জরুরি প্রয়োজন। কলাপাড়া পল্লী বিদ্যুৎ সমিতির ডিজিএম সুবেদ কুমার সরকার জানান, ৩৫হাজার গ্রাহকের জন্য ডিজিটাল প্রি-পেইড মিটারের ব্যবস্থা করা হচ্ছে। ডিসেম্বর মাসের মধ্যে অধিকাংশ গ্রাহক প্রি-পেইড মিটারের মাধ্যমে বিল পরিশোধ করতে পারবেন। তখন আর ভোগান্তি থাকবে না।

Share Button


আজকের বার্তা

আগরপুর রোড, বরিশাল সদর-৮২০০

বার্তা বিভাগ : ০৪৩১-৬৩৯৫৪(১০৫)
ফোনঃ ০১৯১৬৫৮২৩৩৯ , ০১৬১১৫৩২৩৮১
ই-মেলঃ ajkerbarta@gmail.com

সামাজিক যোগাযোগ
Site Map
Show site map

© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত
প্রকাশকঃ কাজী মেহেরুন্নেসা বেগম
সম্পাদক ও প্রতিষ্ঠাতাঃ কাজী নাসির উদ্দিন বাবুল
Website Design and Developed by
logo

আজকের বার্তা কর্তৃক সর্বস্বত্ব সংরক্ষিত। অনুমতি ছাড়া এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা, ছবি ও বিষয়বস্তু অন্য কোথাও প্রকাশ করা বেআইনি।