আজকের বার্তা | logo

৫ই অগ্রহায়ণ, ১৪২৫ বঙ্গাব্দ | ১৯শে নভেম্বর, ২০১৮ ইং

বরিশালে টিটিসি’র আবাসিক ভবনের ভাড়া নিয়ে অনিয়ম

প্রকাশিত : ফেব্রুয়ারি ০৭, ২০১৮, ০১:৩৯

বরিশালে টিটিসি’র আবাসিক ভবনের ভাড়া নিয়ে অনিয়ম

স্টাফ রিপোর্টার ॥ বরিশাল কারিগরি প্রশিক্ষণ কেন্দ্রে (টিটিসি) শিক্ষকদের আবাসিক ভবনে বসবাসকারীদের ভাড়া নিয়ে নানান অনিয়মের অভিযোগ পাওয়া গেছে। তারা পরিবার নিয়ে আবাসিক ভবনে থাকলেও সরকারি খাতে কর্তন করা হচ্ছে ব্যাচেলর কোয়ার্টারের ভাড়া। অর্থাৎ আবাসিক ভবনের ভাড়া মূল বেতনের ৪০ ভাগ হলেও তারা জমা দিচ্ছেন মাত্র ৫ ভাগ। এমনকি ওই টাকাও বকেয়া রাখা এবং বহিরাগতের কাছে কক্ষ ভাড়া দেয়ার অভিযোগ রয়েছে কতিপয় শিক্ষক-কর্মচারীর বিরুদ্ধে। ফলে বরিশাল টিটিসি’র ৭টি আবাসিক ভবন থেকে সরকার লাখ লাখ টাকা রাজস্ব হারাচ্ছে। অভিযোগ রয়েছে, টিটিসি’র ভারপ্রাপ্ত অধ্যক্ষ আতা হিয়াবিন খুদা’কে ম্যানেজ করে দীর্ঘদিন যাবত প্রতিষ্ঠানটিতে এসব অনিময় চলছে। বিভিন্ন মাধ্যমে এসব অনিয়মের খবর জানতে পেরে জনশক্তি কর্মসংস্থান প্রশিক্ষণ ব্যুরোর পরিচালক (পরিকল্পনা) মো. সাজ্জাদ হোসেন গতকাল মঙ্গলবার বরিশাল টিটিসিতে গিয়ে সরেজমিনে তদন্ত শুরু করেছেন। এসব অভিযোগ প্রসঙ্গে জানতে গতকাল দুপুরে বরিশাল টিটিসি’র ভারপ্রাপ্ত অধ্যক্ষ আতা ইয়াবিন খুদা’র কার্যালয়ে এ প্রতিবেদক গেলে তিনি নানান ব্যস্ততার অজুহাত দেখিয়ে এড়িয়ে যাওয়ার চেষ্টা করেন। এক পর্যায়ে তিনি বলেন, ব্যুরোর পরিচালক (পরিকল্পনা) মো. সাজ্জাদ হোসেন ২০১১ সালের একটি উন্নয়ন কাজের অনিময় তদন্ত করতে বরিশালে রয়েছেন। আবাসিক ভবনের ভাড়া নিয়ে অনিয়মের অভিযোগ অস্বীকার করেন তিনি। ভারপ্রাপ্ত অধ্যক্ষ আতা হিয়াবিন খুদা বলেন, বর্তমানে ঝালকাঠি টিটিসিতে কর্মরত প্রশিক্ষক (অটোমোবাইল) মো. আলাউদ্দিন অবৈধভাবে বরিশাল টিটিসি’র আবাসিক ভবনে বাস করছেন। তার কাছে ৩ লক্ষাধিক টাকা বকেয়া রয়েছে। বিষয়টি ঊর্ধ্বতন কর্তৃপক্ষকে জানানো হয়েছে। তবে টিটিসি’র বিভিন্ন দায়িত্বশীল সূত্র নিশ্চিত করেছে, অধ্যক্ষের যোগসাজশে আবাসিক ভবনে বসবাস করেও মাত্র ৫ ভাগ হারে ভাড়া দিচ্ছেন চতুর্থ শ্রেণির কর্মচারী মো. মনোয়ার হোসেন, মসজিদের ইমাম মো. আবদুল্লাহসহ কয়েকজন শিক্ষক-কর্মচারী। প্রতিষ্ঠানটির প্রশিক্ষক মো. ফরিদউদ্দিন ও শহীদুল ইসলাম, স্টোরকিপার রনজিৎ চক্রবর্তীসহ প্রায় ১৫ জন কর্মকর্তা-কর্মচারী তাদের কক্ষ ৩ থেকে ৪ হাজার টাকায় বাহিরের লোকের কাছে ভাড়া দিয়েছেন। নাম প্রকাশ না করার শর্তে টিটিসি’র একাধিক শিক্ষক জানান, অধ্যক্ষের শেল্টারে সেখানকার শিক্ষক-কর্মচারীরা রাজস্ব দিচ্ছেন না। ওই সূত্রগুলো জানায়, বর্তমানে ঝালকাঠিতে কর্মরত প্রশিক্ষক মো. আলাউদ্দিন ৫ মাস আগে বদলি হলেও পরিবার নিয়ে তিনি এখনও বরিশাল টিটিসি’র আবাসিক ভবনে থাকেন। তবে মো. আলাউদ্দিন এ অভিযোগ অস্বীকার করে বলেন, তিনি বরিশাল জেলা স্কুলে অধ্যয়নরত ছেলেকে নিয়ে টিটিসি’র ছাত্রাবাসে থাকেন। ওই ছাত্রাবাসে আরও কয়েকজন শিক্ষক রয়েছেন। ভারপ্রাপ্ত অধ্যক্ষ তাকে হয়রানি করার উদ্দেশ্যে ৩ লাখ ২০ হাজার টাকা ভাড়া বকেয়ার অভিযোগ প্রধান কার্যালয়ে দিয়েছেন। এমনকি অধ্যক্ষ তাকে হয়রানির উদ্দেশ্যেই রাঙামাটি বদলিও করিয়েছিলেন। ছাত্রাবাসে শিক্ষক থাকা প্রসঙ্গে জানতে চাইলে অধ্যক্ষ বলেন, ৭টি আবাসিক ভবনে ২২টির মতো পরিবার রয়েছে। ছাত্রাবাসে ছাত্র না থাকায় সেখানে কয়েকজন শিক্ষক বাস করেন। অধ্যক্ষ আতা হিয়াবিন খুদা’র দাবি, আবাসিক ভবন ও ছাত্রাবাসে থাকা শিক্ষক-কর্মচারীরা নিয়ম মাফিক ভাড়া দিচ্ছেন।

Share Button


আজকের বার্তা

আগরপুর রোড, বরিশাল সদর-৮২০০

বার্তা বিভাগ : ০৪৩১-৬৩৯৫৪(১০৫)
ফোনঃ ০১৯১৬৫৮২৩৩৯ , ০১৬১১৫৩২৩৮১
ই-মেলঃ ajkerbarta@gmail.com

সামাজিক যোগাযোগ
Site Map
Show site map

© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত
প্রকাশকঃ কাজী মেহেরুন্নেসা বেগম
সম্পাদক ও প্রতিষ্ঠাতাঃ কাজী নাসির উদ্দিন বাবুল
Website Design and Developed by
logo

আজকের বার্তা কর্তৃক সর্বস্বত্ব সংরক্ষিত। অনুমতি ছাড়া এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা, ছবি ও বিষয়বস্তু অন্য কোথাও প্রকাশ করা বেআইনি।