আজকের বার্তা | logo

৮ই আশ্বিন, ১৪২৫ বঙ্গাব্দ | ২৩শে সেপ্টেম্বর, ২০১৮ ইং

বেপরোয়া গতির মোটরসাইকেলে অতিষ্ঠ বরিশাল নগরবাসী

প্রকাশিত : জানুয়ারি ০১, ২০১৮, ০১:২৫

বেপরোয়া গতির মোটরসাইকেলে অতিষ্ঠ বরিশাল নগরবাসী

এম. বাপ্পি ॥ উঠতি বয়সী তরুণ-কিশোরদের বেপরোয়া গতিতে মোটরসাইকেল চালনা এবং অন্যান্য যানবাহনের ডাবল হর্নের কারণে অতিষ্ঠ বরিশাল নগরবাসী। নগরীর প্রায় প্রতিটি সড়কে এসব উঠতি বয়সীদের দৌরাত্ম্যে সাধারণ মানুষ বিরক্ত এবং অনেকাংশে ভীত। বিভিন্ন বিনোদন স্পট ও জনবহুল এলাকায় বিকট শব্দ সৃষ্টি করে মোটরসাইকেলে যাতায়াত করে কিশোর-তরুণরা। এছাড়া প্রাইভেটকার, মাইক্রোবাস, পিকআপ ভ্যান, ট্রাক, মাহিন্দ্রা, অটো রিকশার ডাবল হর্নের বিকট আওয়াজে শব্দ দূষণের পাশাপাশি ভোগান্তি পোহাতে হচ্ছে পথচারীদের। সকল যানবাহনের ক্ষেত্রে হেডলাইটের এক চতুর্থাংশ কালো রঙে ঢেকে রাখার বিধান থাকলেও বেশিরভাগ যানের চালকরা তা মানছেন না। রাতের বেলা এসব যানের হেডলাইটের তীব্র আলোয় চোখ ধাঁধিঁয়ে যায় অন্য যান চালকদের। ফলে যে কোন সময় বড় ধরনের দুর্ঘটনার আশংকা তৈরি হচ্ছে। সরেজমিনে দেখা গেছে, নগরীর অন্যতম বিনোদন স্পট বঙ্গবন্ধু উদ্যান সংলগ্ন সড়কে উঠতি বয়সীরা বিকট শব্দে বেপরোয়া গতিতে মোটরসাইকেল দাপিয়ে বেড়াচ্ছে। এতে একদিকে পথচারীরা যেমন আতঙ্কে থাকেন তেমনি বিব্রতকর অবস্থায় পড়েন বেড়াতে আসা মানুষ। পরিবার নিয়ে বেড়াতে আসা কাউনিয়ার বাসিন্দা সঞ্জয় দাস বলেন, বিকট শব্দে মোটরসাইকেলগুলোর বেপরোয়া গতি, তীব্র হর্নের কারণে তার শিশু কন্যা আতঙ্কিত হয়ে পড়ে। বাধ্য হয়ে তিনি পরিবারসহ বিনোদন স্পটটি থেকে ফিরে আসেন। এমন অভিযোগ ছিল একাধিক দর্শনার্থীর। অপরদিকে রাতের বেলায় অন্যান্য যানের হেডলাইটের চোখ ধাঁধাঁনো তীব্র আলো ও ডাবল হর্নের কারণে শব্দ দূষণের পাশাপাশি জীবনের ঝুঁকিতে রয়েছে নগরবাসী। স্কুল-কলেজের পাশ দিয়ে চলাচলের সময় এসব যানের তীব্র হর্নের কারণে বিঘিœত হচ্ছে পাঠদান কার্যক্রম। মোটরসাইকেলসহ অন্যান্য ছোট-বাড় যান চালকরা জানিয়েছেন, রাতের বেলা নিয়ম না মানায় অন্যান্য যানের তীব্র হেডলাইটের আলোর কারণে তারা প্রায়ই দুর্ঘটনার আশংকায় থাকেন। প্রতিবাদ করলে হেনস্তার শিকার হতে হয়। এরই ধারাবাহিকতায় গতকাল রোববার নগরীতে দ্রুতগামী মোটরসাইকেলের ধাক্কায় নিহত হয় তানভীর রাকিব নামের তৃতীয় শ্রেণির এক শিশু। প্রত্যক্ষদর্শীরা জানান, বেপরোয়া গতির মোটরসাইকেলের ধাক্কায় মর্মান্তিক দুর্ঘটনাটি ঘটে। দুর্ঘটনার পরপরই ঘাতক মোটরসাইকেল চালক পালিয়ে যান।  এ ব্যাপারে জানতে চাইলে বিএম কলেজের প্রাণিবিজ্ঞান বিভাগের অধ্যাপক হাফিজা বলেন, উচ্চবিত্ত শ্রেণির অভিভাবকরা সন্তানের আবদার মেটাতে উপযুক্ত বয়সের আগেই মোটরসাইকেলের চাবি হাতে তুলে দিচ্ছেন। এসব উঠতি বয়সী চালকদের আইন সম্পর্কে কোন ধারণা না থাকায় তারা বেপরোয়া গতিতে মোটরসাইকেল নিয়ে বিকট শব্দে নগরময় দাপিয়ে বেড়াচ্ছে। অতিষ্ঠ করে তুলছে মানুষের স্বাভাবিক জীবনযাত্রা। এছাড়া অন্যান্য যান চালকরাও আইনের প্রতি শ্রদ্ধাশীল নন। প্রশাসনের সংশ্লিষ্টদের নজরদারি বৃদ্ধি, যান চালকদের মধ্যে সচেতনতা তৈরির পাশাপাশি অভিভাবকদেরও এ ক্ষেত্রে যথাযথ ভূমিকা রাখা প্রয়োজন বলে মনে করেন তিনি।

Share Button


আজকের বার্তা

আগরপুর রোড, বরিশাল সদর-৮২০০

বার্তা বিভাগ : ০৪৩১-৬৩৯৫৪(১০৫)
ফোনঃ ০১৯১৬৫৮২৩৩৯ , ০১৬১১৫৩২৩৮১
ই-মেলঃ ajkerbarta@gmail.com

সামাজিক যোগাযোগ
Site Map
Show site map

© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত
প্রকাশকঃ কাজী মেহেরুন্নেসা বেগম
সম্পাদক ও প্রতিষ্ঠাতাঃ কাজী নাসির উদ্দিন বাবুল
Website Design and Developed by
logo

আজকের বার্তা কর্তৃক সর্বস্বত্ব সংরক্ষিত। অনুমতি ছাড়া এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা, ছবি ও বিষয়বস্তু অন্য কোথাও প্রকাশ করা বেআইনি।