আজকের বার্তা | logo

১১ই আশ্বিন, ১৪২৫ বঙ্গাব্দ | ২৬শে সেপ্টেম্বর, ২০১৮ ইং

বিএম কলেজে আট বছর শিক্ষকদের নেতৃত্ব নেই

প্রকাশিত : জানুয়ারি ১৭, ২০১৮, ০১:১১

বিএম কলেজে আট বছর শিক্ষকদের নেতৃত্ব নেই

স্টাফ কাউন্সিলের সভায় নির্বাচন দাবি

 

স্টাফ রিপোর্টার ॥ ঐতিহ্যবাহী বরিশাল বিএম কলেজে দীর্ঘ ৮ বছর ধরে শিক্ষকদের নেতৃত্ব নেই। কলেজটির শিক্ষকদের শক্তিশালী সংগঠন শিক্ষক পরিষদ দীর্ঘ বছর ধরে অকার্যকর হয়ে আছে। অনেকটা অগণতান্ত্রিক প্রক্রিয়ায় পরিষদের সম্পাদক বছরের পর বছর একই পদে আছেন। একই অবস্থা শিক্ষক কাবেরও। উদ্ভূত পরিস্থিতিতে সোমবার কলেজের স্টাফ কাউন্সিলের সভায় সদ্য যোগদানকারী অধ্যক্ষের কাছে শিক্ষক পরিষদ ও কাবের নির্বাচন দাবি করেছেন ক্ষুব্ধ শিক্ষকরা। কলেজর সদ্য যোগদানকারী অধ্যক্ষ প্রফেসর মো: শফিকুর রহমান সিকদার এ তথ্যের সত্যতা স্বীকার করে বলেন, স্টাফ কাউন্সিলের সভায় কলেজের কার্যক্রমকে সামনে এগিয়ে নিতে শিক্ষকদের কাছে মতামত চাওয়া হয়েছে। শিক্ষকরা তাদের পরিষদ ও কাবের নির্বাচন চেয়েছেন। তিনি এ বিষয়ে প্রতিশ্রুতি দিয়েছেন। তাদের দাবি গণতান্ত্রিক প্রক্রিয়ায় বাস্তবায়ন করা হবে। তিনি বলেন, এখন থেকে প্রতি ১৫ দিন পরে স্টাফ কাউন্সিলের সভা হবে। ওই সভায় কলেজের অর্থনৈতিক খাতের স্বচ্ছতা প্রমাণ করতে সব বিষয় তুলে ধরা হবে। এজন্য তাদের অবশ্যই মানসম্মত শিক্ষা নিশ্চিত করতে হবে। জানা গেছে, ২০১০ সালে সর্বশেষ বিএম কলেজের শিক্ষক পরিষদ ও শিক্ষক কাবের নির্বাচন হয়। এরপর আর এ দুটি সংগঠনের নির্বাচন হয়নি। গত ৮ বছর ধরে তাই রাজনৈতিক পৃষ্ঠপোষকতায় শিক্ষক পরিষদের সম্পাদক পদটি আঁকড়ে ধরে আছেন ইতিহাস বিভাগের সহযোগী অধ্যাপক এএসএম কাইউম উদ্দিন আহমেদ। শিক্ষকরা অভিযোগ করেছেন, শিক্ষক পরিষদের নির্বাচন না হওয়ার সুযোগে বছরের পর বছর নানা খাতে অনিয়ম হয়েছে বিএম কলেজে। এ ঘটনায় চরম অসন্তোষ বিরাজ করছে শিক্ষকদের মাঝে। সোমবার বেলা ২টায় কলেজের শিক্ষক মিলনায়তনে অনুষ্ঠিত স্টাফ কাউন্সিলের সভায় অধিকাংশ শিক্ষক নির্বাচন দাবি করেন। পাশাপাশি কলেজের সব বিষয়ে অর্থনৈতিক স্বচ্ছতা যেন স্পষ্ট করা হয় এমনটাই আহবান জানান অধ্যক্ষের কাছে। জানতে চাইলে অর্থনীতি বিভাগের সহযোগী অধ্যাপক মো: আক্তারুজ্জামান বলেন, কলেজের সবারই মনোভাব যেন প্রতি বছর একটি গণতান্ত্রিক প্রক্রিয়ার মাধ্যমে শিক্ষক পরিষদ ও কাবের নির্বাচন হয়। তিনি এ বিষয়টি নতুন অধ্যক্ষকে সভায় অবহিত করেছেন। অধ্যক্ষ বলেছেন বিষয়টি দেখবেন। সভায় একই ধরনের মন্তব্য করে নির্বাচন দাবি করেছেন সহযোগী অধ্যাপক সরদার আকবর আলী। সহকারী অধ্যাপক মো: গোলাম মোর্শেদ সভায় জানান, শিক্ষক কাব অচল হয়ে আছে বহু বছর। এর নির্বাচন হওয়া দরকার। সভা সূত্রে জানা গেছে, এমন দাবি সমর্থন করেছেন অধিকাংশ শিক্ষক।

Share Button


আজকের বার্তা

আগরপুর রোড, বরিশাল সদর-৮২০০

বার্তা বিভাগ : ০৪৩১-৬৩৯৫৪(১০৫)
ফোনঃ ০১৯১৬৫৮২৩৩৯ , ০১৬১১৫৩২৩৮১
ই-মেলঃ ajkerbarta@gmail.com

সামাজিক যোগাযোগ
Site Map
Show site map

© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত
প্রকাশকঃ কাজী মেহেরুন্নেসা বেগম
সম্পাদক ও প্রতিষ্ঠাতাঃ কাজী নাসির উদ্দিন বাবুল
Website Design and Developed by
logo

আজকের বার্তা কর্তৃক সর্বস্বত্ব সংরক্ষিত। অনুমতি ছাড়া এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা, ছবি ও বিষয়বস্তু অন্য কোথাও প্রকাশ করা বেআইনি।