আজকের বার্তা | logo

৯ই আশ্বিন, ১৪২৫ বঙ্গাব্দ | ২৩শে সেপ্টেম্বর, ২০১৮ ইং

বরিশালে ইট বিক্রিতে ভয়ংকর প্রতারণা

প্রকাশিত : জানুয়ারি ০৪, ২০১৮, ০২:২৪

বরিশালে ইট বিক্রিতে  ভয়ংকর প্রতারণা

স্টাফ রিপোর্টার ॥ ইট নিয়ে ক্রেতাদের সঙ্গে ভয়ংকর প্রতারণা করছেন বরিশালের ইটভাটা ব্যবসায়ীরা। ক্রেতারা প্রতি হাজার ইটে কমপক্ষে ১৪২ পিস ইট কম পাচ্ছেন। ইটের পরিমাপ ছোট করে ক্রেতাদের এভাবে ঠকাচ্ছেন ইটভাটা ব্যবসায়ীরা। গতকাল বুধবার বরিশাল ভোক্তা অধিকার সংরক্ষণ অধিদপ্তরের একটি দল বরিশালের ৪টি ইটভাটা সরেজমিনে পরিদর্শনে গেলে ব্যবসায়ীদের প্রতারণার বিষয়টি ধরা পড়ে। ৪ ইটভাটা মালিককে মোট ১ লাখ ৬৫ হাজার টাকা জরিমানা করেছে ভোক্তা অধিকার সংরক্ষণ অধিদপ্তর। ওই ইটভাটাগুলো হলো- বাবুগঞ্জ উপজেলার রহমতপুর এলাকার সুপার ব্রিকস এবং একই উপজেলার দোয়ারিকা এলাকার বেস্ট ব্রিকস, স্টার ব্রিকস ও হাইতি ব্রিকস। ভোক্তা সংরক্ষণ অধিদপ্তরের সহকারী পরিচালক সুমি রাণী মিত্র জানান, আইন অনুযায়ী প্রতি পিস ইট হবে লম্বায় ২৪ সেন্টিমিটার, প্রস্থে ১১ দশমিক ৫ সেন্টিমিটার এবং উচ্চতায় ৭ সেন্টিমিটার। গতকাল ৪টি ইটভাটায় সরেজমিনে গিয়ে দেখা গেছে, ওই ৪টি ইটভাটার প্রতিটি ইটের আকার দৈর্ঘ্য, প্রস্থ এবং উচ্চতায় কমপক্ষে ১ সেন্টিমিটার করে কম। আকৃতি কম হওয়ায় একজন ক্রেতা প্রতি হাজারে ১৪২ পিসের সমপরিমাণ  ইট কম পাচ্ছেন। ভোক্তা সংরক্ষণ অধিদপ্তরের সদস্য মৎস্য কর্মকর্তা (ইলিশ) বিমল চন্দ্র দাস জানান, ইটের বর্তমান বাজার দর হলো প্রতি হাজার পিস ইট ৯ হাজার টাকা। সে হিসাবে ১৪২ পিস ইটের দাম ১২৭৮ টাকা। অর্থাৎ একজন ক্রেতা প্রতি হাজার ইটে প্রায় ১৩০০ টাকা ঠকছেন। বিমল চন্দ্র দাস বলেন, ইটভাটা ব্যবসায়ীরা ক্রেতাদের ঠকিয়ে যে পরিমাণ অর্থ হাতিয়ে নিচ্ছেন, সে অনুপাতে তাদের জরিমানার পরিমাণ খুব কম হয়েছে। এ ব্যাপারে বরিশাল পরিবেশ অধিদপ্তরের পরিচালক হাবিবুর রহমান বলেন, ভোক্তা সংরক্ষণ অধিদপ্তর যে অভিযান করেছে সে বিষয়ে তিনি অবগত আছেন। এর আগে এমন তথ্য তারা পাননি। ইট এর একটি স্ট্যান্ডার্ড (আকার) আছে। মাপে কম দিলে ইটভাটা মালিকদের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নেয়া হবে। এ ধরনের অভিযানে তারাও সম্পৃক্ত হবেন বলে জানান তিনি।

 

Share Button


আজকের বার্তা

আগরপুর রোড, বরিশাল সদর-৮২০০

বার্তা বিভাগ : ০৪৩১-৬৩৯৫৪(১০৫)
ফোনঃ ০১৯১৬৫৮২৩৩৯ , ০১৬১১৫৩২৩৮১
ই-মেলঃ ajkerbarta@gmail.com

সামাজিক যোগাযোগ
Site Map
Show site map

© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত
প্রকাশকঃ কাজী মেহেরুন্নেসা বেগম
সম্পাদক ও প্রতিষ্ঠাতাঃ কাজী নাসির উদ্দিন বাবুল
Website Design and Developed by
logo

আজকের বার্তা কর্তৃক সর্বস্বত্ব সংরক্ষিত। অনুমতি ছাড়া এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা, ছবি ও বিষয়বস্তু অন্য কোথাও প্রকাশ করা বেআইনি।