আজকের বার্তা | logo

৫ই আশ্বিন, ১৪২৫ বঙ্গাব্দ | ২০শে সেপ্টেম্বর, ২০১৮ ইং

গৌরনদীতে খাল থেকে উদ্ধার শিশুকে পরিবারের কাছে হস্তান্তর

প্রকাশিত : জানুয়ারি ১৬, ২০১৮, ১৮:০২

গৌরনদীতে খাল থেকে উদ্ধার শিশুকে পরিবারের কাছে হস্তান্তর

নিজস্ব প্রতিবেদক: বরিশালের গৌরনদী উপজেলার বাটাজোর ইউনিয়নের চন্দ্রহার খালের কচুরিপানার মধ্য থেকে ১৯ মাস বয়সের শিশু মো. হাফিজকে উদ্ধারের ৪ দিন পর তার পরিবারের কাছে ফিরিয়ে দিয়েছে সমাজসেবা অধিদপ্তর। আজ আগৈলঝাড়ার গৈলায় বিভাগীয় বেবী হোমে আইনী প্রক্রিয়া শেষে শিশু হাফিজকে তার বাবা নজরুল প্যাদার হাতে তুলে দেন আগৈলঝাড়া উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা আশ্রাফ আহম্মেদ রাসেল। এ সময় বেবী হোমের উপ-তত্ত্বাবধায়ক আবুল কালাম আজাদ, উপজেলা সমাজসেবা কর্মকর্তা সুশান্ত বালা, মুক্তিযোদ্ধা আব্দুর রইচ সেরনিয়াবাত সহ অন্যান্যরা উপস্থিত ছিলেন। শিশু হাফিজ গৌরনদীর শরিকল ইউনিয়নের দক্ষিণ সাঁকোকাঠী গ্রামের বাসিন্দা দিনমজুর নজরুল প্যাদার ছেলে।

নজরুল প্যাদা জানান, তাদের সংসারে চার মেয়ের পর একমাত্র ছেলে হাফিজ। তার স্ত্রী নাসিমা বেগমকে দীর্ঘদিন ধরে মানসিক ভারসাম্যহীন। গত ১২জানুয়ারি শুক্রবার শিশু হাফিজকে নিয়ে তার মা নাসিমা বেগম বাড়ি থেকে বের হওয়ার পর থেকে হাফিজ নিখোঁজ হয়। কিন্তু ছেলে নিখোঁজের বিষয়ে মা নাসিমা বেগম কিছুই বলতে পারছিল না।

পরে তিনি সংবাদপত্রের মাধ্যমে জানতে পারেন তার বাড়ি থেকে অন্তত দুই কিলোমিটার দূরে চন্দ্রহার গ্রামের খালের কচুরিপানার ভেতরে কান্নারত অবস্থায় শিশু হাফিজকে উদ্ধার করে গৌরনদী থানায় সোপর্দ করেন স্থানীয় এক পথচারী। গৌরনদী থানা পুলিশ এ ঘটনায় ওই দিনই একটি সাধারণ ডায়েরী (নং-৪৬২) করে সমাজসেবা অধিদফতরের আওতাধীন গৈলার বিভাগীয় বেবী হোমে হাফিজকে হস্তান্তর করেন। আইনী প্রক্রিয়া শেষে আজ মঙ্গলবার সকালে শিশু হাফিজকে ৪দিন পর ফিরে পান তিনি।

হারিয়ে যাওয়া একমাত্র শিশু ছেলেকে ফিরে পেয়ে আনন্দে আপ্লুত নজরুল প্যাদা। এ জন্য তিনি প্রশাসনের প্রতি কৃতজ্ঞতা প্রকাশ করেছেন।

Share Button


আজকের বার্তা

আগরপুর রোড, বরিশাল সদর-৮২০০

বার্তা বিভাগ : ০৪৩১-৬৩৯৫৪(১০৫)
ফোনঃ ০১৯১৬৫৮২৩৩৯ , ০১৬১১৫৩২৩৮১
ই-মেলঃ ajkerbarta@gmail.com

সামাজিক যোগাযোগ
Site Map
Show site map

© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত
প্রকাশকঃ কাজী মেহেরুন্নেসা বেগম
সম্পাদক ও প্রতিষ্ঠাতাঃ কাজী নাসির উদ্দিন বাবুল
Website Design and Developed by
logo

আজকের বার্তা কর্তৃক সর্বস্বত্ব সংরক্ষিত। অনুমতি ছাড়া এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা, ছবি ও বিষয়বস্তু অন্য কোথাও প্রকাশ করা বেআইনি।