আজকের বার্তা | logo

৪ঠা আশ্বিন, ১৪২৫ বঙ্গাব্দ | ১৯শে সেপ্টেম্বর, ২০১৮ ইং

আড়িয়াল খাঁ নদে ধান বোঝাই ট্রলার ডুবি: কৃষক নিখোঁজ

প্রকাশিত : জানুয়ারি ২০, ২০১৮, ০০:১৫

আড়িয়াল খাঁ নদে ধান বোঝাই  ট্রলার ডুবি: কৃষক নিখোঁজ

 

জহিরুল অরুন, বাবুগঞ্জ প্রতিনিধি ॥ বাবুগঞ্জ উপজেলার আড়িয়াল খাঁ ও মরা আড়িয়াল খাঁ নদীর মোহনায় ধান বোঝাই ট্রলার ডুবিতে মুলাদী উপজেলার কাজীরচর ইউনিয়নের ডিক্রিরচর এলাকার ইসমাঈল হাওলাদার (৫০) নামের এক কৃষক নিখোঁজ হয়েছেন। গতকাল শুক্রবার সকাল ৯ টায় ওই ট্রলার ডুবির ঘটনা ঘটে। বেঁচে গেছেন ট্রলারে থাকা নিখোঁজ ইসমাঈলের ছেলে রিয়াজ (১৩), তার নিকটাত্মীয় শামীম (১৮) এবং ট্রলার মালিক ও চালক কামাল হোসেন (৩৫)। ঘটনার পর কাজীরচর ইউপি সদস্য মোঃ শামীম খানের নেতৃত্বে অন্তত ১৫টি নৌকা নিয়ে গ্রামবাসী নিখোঁজের সন্ধানে নামেন। ঘটনাস্থলে ছুটে যান বাবুগঞ্জ থানার ওসি আব্দুস সালাম এবং সঙ্গীয় পুলিশ। সংবাদ পেয়ে বরিশাল ফায়ার সার্ভিসের ডুবুরি দল ঘটনাস্থলে পৌঁছে নিখোঁজ ইসমাঈল ও ডুবে যাওয়া ট্রলার উদ্ধার অভিযানে নামে। প্রাণে বেঁচে যাওয়া নিখোঁজ ইসমাঈলের ছেলে রিয়াজ ঘটনার বর্ণনা দিতে গিয়ে এ প্রতিনিধিকে জানায়, গতকাল সকালে তার বাবাসহ মোট ৪ জন ধান ভাঙাতে বাড়ি থেকে মীরগঞ্জ বাজারে ইঞ্জিনচালিত ট্রলারযোগে রাইস মিলের উদ্দেশে রওয়ানা দেন। পুরান (মরা নদ) আড়িয়াল খাঁ হয়ে বর্তমান আড়িয়াল খাঁ নদের মোহনা অতিক্রমকালে তাদের ট্রলার ঘেঁষে অন্য একটি ট্রলার যাবার সময় ঢেউয়ের কারণে তাদের ধান বোঝাই ট্রলারটি ডুবে যায়। তার বাবা সাঁতার না জানাতে ডুবে যান তিনি। রিয়াজসহ বাকী ৩ জন  প্রাণপণে সাঁতার কাটতে থাকেন। তাদের ডাক-চিৎকারে কাছে তাকা একটি জেলে নৌকা এসে তাদের উদ্ধার করে। কিন্তু ততক্ষণে ইসমাঈল ডুবে যান। সংবাদ পেয়ে সকাল ১১টায় বরিশাল ফায়ার সার্ভিসের ডুবুরি দল এসে উদ্ধার কাজ শুরু করে। ছুটে আসে নিখোঁজ ইসমাঈলের পরিবারের লোকজন। এ সময় তাদের আহাজারিতে মীরগঞ্জ এলাকার বাতাস ভারী হয়ে উঠে। সকাল ১১টা থেকে বিকেল ৫টা পর্যন্ত নদীতে অভিযান চালিয়েও নিখোঁজ ইসমাঈল কিংবা ডুবে যাওয়া ট্রলারটির সন্ধান মেলেনি। ডুবুরি দলের নেতৃত্বে থাকা বরিশাল নদী পথের স্টেশন অফিসার দেবাশীষ বিশ্বাস বলেন, তাদের ধারণার তুলনায় নদী অনেক গভীর এবং অসমতল; তাই উদ্ধার কাজে কিছুটা বিঘœ ঘটছে। তাছাড়া তিন নদীর মোহনা হওয়াতে গতিপথ নির্ণয় করাও মুশকিল হয়ে পড়েছে। ডুবে যাওয়ার ২৪ ঘণ্টার মধ্যে লাশ অবশ্যই ভেসে উঠবে। তাই স্থানীয়দের এ ব্যাপারে নদীতে নজরদারির পরামর্শ দেন তিনি। প্রত্যক্ষদর্শীরা বলেন, ট্রলারটিতে ধারণ ক্ষমতার চেয়ে বেশি ধান বোঝাই থাকাতে দুর্ঘটনাটি ঘটে। এ ব্যাপারে বাবুগঞ্জ থানার ওসি আব্দুস সালাম বলেন, তারা চেষ্টা চালিয়ে যাচ্ছেন। অভিযান গতকালের মত সমাপ্ত ঘোষণা করা হয়েছে। প্রয়োজনে আজ আবার অভিযান পরিচালিত হবে।

বাবুগঞ্জ প্রতিনিধি ॥ বাবুগঞ্জ উপজেলার আড়িয়াল খাঁ ও মরা আড়িয়াল খাঁ নদীর মোহনায় ধান বোঝাই ট্রলার ডুবিতে মুলাদী উপজেলার কাজীরচর ইউনিয়নের ডিক্রিরচর এলাকার ইসমাঈল হাওলাদার (৫০) নামের এক কৃষক নিখোঁজ হয়েছেন। গতকাল শুক্রবার সকাল ৯ টায় ওই ট্রলার ডুবির ঘটনা ঘটে। বেঁচে গেছেন ট্রলারে থাকা নিখোঁজ ইসমাঈলের ছেলে রিয়াজ (১৩), তার নিকটাত্মীয় শামীম (১৮) এবং ট্রলার মালিক ও চালক কামাল হোসেন (৩৫)। ঘটনার পর কাজীরচর ইউপি সদস্য মোঃ শামীম খানের নেতৃত্বে অন্তত ১৫টি নৌকা নিয়ে গ্রামবাসী নিখোঁজের সন্ধানে নামেন। ঘটনাস্থলে ছুটে যান বাবুগঞ্জ থানার ওসি আব্দুস সালাম এবং সঙ্গীয় পুলিশ। সংবাদ পেয়ে বরিশাল ফায়ার সার্ভিসের ডুবুরি দল ঘটনাস্থলে পৌঁছে নিখোঁজ ইসমাঈল ও ডুবে যাওয়া ট্রলার উদ্ধার অভিযানে নামে। প্রাণে বেঁচে যাওয়া নিখোঁজ ইসমাঈলের ছেলে রিয়াজ ঘটনার বর্ণনা দিতে গিয়ে এ প্রতিনিধিকে জানায়, গতকাল সকালে তার বাবাসহ মোট ৪ জন ধান ভাঙাতে বাড়ি থেকে মীরগঞ্জ বাজারে ইঞ্জিনচালিত ট্রলারযোগে রাইস মিলের উদ্দেশে রওয়ানা দেন। পুরান (মরা নদ) আড়িয়াল খাঁ হয়ে বর্তমান আড়িয়াল খাঁ নদের মোহনা অতিক্রমকালে তাদের ট্রলার ঘেঁষে অন্য একটি ট্রলার যাবার সময় ঢেউয়ের কারণে তাদের ধান বোঝাই ট্রলারটি ডুবে যায়। তার বাবা সাঁতার না জানাতে ডুবে যান তিনি। রিয়াজসহ বাকী ৩ জন  প্রাণপণে সাঁতার কাটতে থাকেন। তাদের ডাক-চিৎকারে কাছে তাকা একটি জেলে নৌকা এসে তাদের উদ্ধার করে। কিন্তু ততক্ষণে ইসমাঈল ডুবে যান। সংবাদ পেয়ে সকাল ১১টায় বরিশাল ফায়ার সার্ভিসের ডুবুরি দল এসে উদ্ধার কাজ শুরু করে। ছুটে আসে নিখোঁজ ইসমাঈলের পরিবারের লোকজন। এ সময় তাদের আহাজারিতে মীরগঞ্জ এলাকার বাতাস ভারী হয়ে উঠে। সকাল ১১টা থেকে বিকেল ৫টা পর্যন্ত নদীতে অভিযান চালিয়েও নিখোঁজ ইসমাঈল কিংবা ডুবে যাওয়া ট্রলারটির সন্ধান মেলেনি। ডুবুরি দলের নেতৃত্বে থাকা বরিশাল নদী পথের স্টেশন অফিসার দেবাশীষ বিশ্বাস বলেন, তাদের ধারণার তুলনায় নদী অনেক গভীর এবং অসমতল; তাই উদ্ধার কাজে কিছুটা বিঘœ ঘটছে। তাছাড়া তিন নদীর মোহনা হওয়াতে গতিপথ নির্ণয় করাও মুশকিল হয়ে পড়েছে। ডুবে যাওয়ার ২৪ ঘণ্টার মধ্যে লাশ অবশ্যই ভেসে উঠবে। তাই স্থানীয়দের এ ব্যাপারে নদীতে নজরদারির পরামর্শ দেন তিনি। প্রত্যক্ষদর্শীরা বলেন, ট্রলারটিতে ধারণ ক্ষমতার চেয়ে বেশি ধান বোঝাই থাকাতে দুর্ঘটনাটি ঘটে। এ ব্যাপারে বাবুগঞ্জ থানার ওসি আব্দুস সালাম বলেন, তারা চেষ্টা চালিয়ে যাচ্ছেন। অভিযান গতকালের মত সমাপ্ত ঘোষণা করা হয়েছে। প্রয়োজনে আজ আবার অভিযান পরিচালিত হবে।

Share Button


আজকের বার্তা

আগরপুর রোড, বরিশাল সদর-৮২০০

বার্তা বিভাগ : ০৪৩১-৬৩৯৫৪(১০৫)
ফোনঃ ০১৯১৬৫৮২৩৩৯ , ০১৬১১৫৩২৩৮১
ই-মেলঃ ajkerbarta@gmail.com

সামাজিক যোগাযোগ
Site Map
Show site map

© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত
প্রকাশকঃ কাজী মেহেরুন্নেসা বেগম
সম্পাদক ও প্রতিষ্ঠাতাঃ কাজী নাসির উদ্দিন বাবুল
Website Design and Developed by
logo

আজকের বার্তা কর্তৃক সর্বস্বত্ব সংরক্ষিত। অনুমতি ছাড়া এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা, ছবি ও বিষয়বস্তু অন্য কোথাও প্রকাশ করা বেআইনি।