আজকের বার্তা | logo

১৪ই ফাল্গুন, ১৪২৪ বঙ্গাব্দ | ২৬শে ফেব্রুয়ারি, ২০১৮ ইং

৭০ টাকা দিয়ে শিশুকে ধর্ষণ করে পালাল যুবলীগ কর্মী!

প্রকাশিত : ডিসেম্বর ২১, ২০১৭, ১২:৫৩

৭০ টাকা দিয়ে শিশুকে ধর্ষণ করে পালাল যুবলীগ কর্মী!

নোয়াখালীতে যুবলীগ কর্মী কর্তৃক ৬ বছরের এক শিশু ধর্ষণের শিকার হয়েছে। জেলার চৌমুহনী করিমপুর রোডের মফিজ ভাণ্ডারীর গ্যারেজে আনন্দ যাত্রীবাহী বাসের ভিতরে পারভেজ নামক যুবলীগ কর্মী ওই শিশুটিকে শারীরিক নির্যাতন করে।

এই রকম একটি জঘন্য ঘটনা ঘটানোর পরে ওই গাড়ির ড্রাইভার যুবলীগ কর্মী পারভেজের বাড়ি ঘেরাও করেও পুলিশ তাকে আটক করতে পারেনি। তবে এ সময় পুলিশ আনন্দ পরিবহন নামের ওই গাড়িটি জব্দ করেছে।

এ ঘটনার পর নানাভাবে মামলা না করার জন্য চাপ প্রয়োগ করা হচ্ছে বলে গণমাধ্যম কর্মীদের কাছে অভিযোগ দায়ের করেছেন ধর্ষিতার বড় বোন।

এ ব্যাপারে চৌমুহনী পুলিশ ফাঁড়ির ইনচার্জ উপ-পুলিশ পরিদর্শক মোস্তাক আহম্মেদ গণমাধ্যমকে জানান, অভিযুক্ত ওই ধর্ষক তিন সন্তানের জনক। সে করিমপুর গ্রামের মুগা আমিন বাড়ির বদিউজ্জামানের পুত্র।

বেগমগঞ্জ পাইলট উচ্চ বিদ্যালয়ের সামনে মফিজ ভাণ্ডারীর বাসস্ট্যান্ড গ্যারেজে গাড়িটি রেখে প্রথমে ওই শিশুটিকে ফুসলিয়ে পাশে দাঁড়ানো একটি ট্রাকে উঠায়। এরপর শিশুটিকে চা খাওয়ার কথা বলে চৌমুহনী-লক্ষ্মীপুর সড়কে চলাচলকারী আনন্দ পরিবহন গাড়িতে তুলে ধর্ষণ করে। ঘটনার পর অবুঝ শিশুটি কষ্টে চিৎকার দিলে পারভেজ ধর্ষিতা শিশুর হাতের মুঠোয় ৭০ টাকা দিয়ে দৌড়ে পালিয়ে যায়।

এ সময় স্থানীয় লোকজন এসে ধর্ষিতাকে উদ্ধার করে প্রথমে বেগমগঞ্জ স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি করে। ধর্ষিতা শিশুটির অবস্থা আশঙ্কাজনক হওয়ায় পরে তাকে নোয়াখালী জেলা সদরে স্থানান্তর করা হয়েছে। অতিরিক্ত রক্তক্ষরণ হওয়ায় তার অবস্থা আশঙ্কামুক্ত নয় বলে জানায় ডাক্তার।

ধর্ষিতা শিশুর বাবা প্রায় ৩ বছর যাবৎ প্যারালাইসিসে আক্রান্ত এবং মা বিভিন্ন বাসায় কাজ করেন। তারা ওই এলাকার পার্শ্বে মুন্সীবাড়িতে একটি ভাড়া বাসায় থাকে। তাদের বাড়ি বেগমগঞ্জ উপজেলার শরীফপুর ইউনিয়নের সোনাপুর গ্রাম বলে জানা যায়।

এদিকে, ধর্ষিতার বড় বোন হাসপাতালে কান্নাজড়িত কণ্ঠে বলেন, তার মা বুধবার (২০ ডিসেম্বর) সকালে ধর্ষণের ঘটনায় থানায় মামলা করতে গেলে প্রভাবশালী একটি মহলের লোকজন বিভিন্নভাবে হুমকি ধামকি দেয়।

তিনি আরো বলেন, ঘটনার পর থেকে এ পর্যন্ত হাসপাতালে তারা প্রায় না খাওয়া অবস্থায় রয়েছেন। প্রশাসনের কেউ, সমাজের কোনো ব্যক্তি তাদের দেখতে আসেনি। তিনি বলেন, ধর্ষক পারভেজের উপযুক্ত শাস্তি না হলে তার হাতে আরো অনেক অবুঝ শিশু ধর্ষিত হতে পারে।

এ বিষয়ে নোয়াখালী জেনারেল হাসপাতালের কর্তব্যরত ডাক্তার এমআর সাইমুন জানান, ধর্ষণের শিকার শিশুটির অবস্থা বর্তমানে একটু ভালো হলেও আশঙ্কামুক্ত নয়। পরবর্তী ৪৮ ঘণ্টা গেলে তার প্রকৃত অবস্থা জানা যাবে।

বুধবার (২০ ডিসেম্বর) বিকেলে ধর্ষিতার মা ঝর্না বেগম বাদী হয়ে বেগমগঞ্জ মডেল থানায় নারী ও শিশু নির্যাতন দমন আইনে মামলা করেন।

Share Button


আজকের বার্তা

আগরপুর রোড, বরিশাল সদর-৮২০০

বার্তা বিভাগ : ০৪৩১-৬৩৯৫৪(১০৫)
ফোনঃ ০১৯১৬৫৮২৩৩৯ , ০১৬১১৫৩২৩৮১
ই-মেলঃ ajkerbarta@gmail.com

সামাজিক যোগাযোগ
Site Map
Show site map

© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত
প্রকাশকঃ কাজী মেহেরুন্নেসা বেগম
সম্পাদক ও প্রতিষ্ঠাতাঃ কাজী নাসির উদ্দিন বাবুল
Website Design and Developed by
logo

আজকের বার্তা কর্তৃক সর্বস্বত্ব সংরক্ষিত। অনুমতি ছাড়া এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা, ছবি ও বিষয়বস্তু অন্য কোথাও প্রকাশ করা বেআইনি।