আজকের বার্তা | logo

৬ই আশ্বিন, ১৪২৫ বঙ্গাব্দ | ২০শে সেপ্টেম্বর, ২০১৮ ইং

যানজট এড়াতে চালু হলো হেলিকপ্টার ট্যাক্সি

প্রকাশিত : ডিসেম্বর ২৪, ২০১৭, ১৭:০৮

যানজট এড়াতে চালু হলো হেলিকপ্টার ট্যাক্সি

অনলাইন ডেস্ক: এমন ব্যবস্থা যদি এদেশেও থাকত তা হলে মন্দ হতো না। আর ঢাকায় হলে তো কথাই নেই! ইন্দোনেশিয়ার হোয়াইটস্কাই অ্যাভিয়েশন নিয়ে এলো সাধারণ নাগরিকদের জন্য হেলিকপ্টার ট্যাক্সি সার্ভিস। এই আকাশচারী ট্যাক্সি পরিষেবার নাম হেলিসিটি।

বেশ কয়েক দশক ধরে ট্র্যাফিক জটে জর্জরিত জাকার্তা আর জাভার সাধারণ মানুষ। সেই সমস্যা থেকে উদ্ধার করতেই এই ব্যবস্থা। প্রথম এক বছর ব্যাবসায়িক ক্ষেত্রে যুক্ত মানুষদের পরিষেবা দেওয়া শুরু করেছিল এই সংস্থা। তা সফল হতেই সাধারণ মানুষের জন্য চালু করল এই পরিষেবা।

এই ব্যবস্থামূলত গ্রেটার জাকার্তা আর পশ্চিম জাভার বানদুং-এর যাত্রীদের জন্য। এই দু’টি জায়গাই যান জটের জন্য বলা যায় কুখ্যাত হয়ে উঠেছে।

এই পরিষেবা চালুর পর যাতায়াতের সময় কমেছে অনেকটাই। গাড়ি করে জাকার্তা থেকে বানদুং যেতে স্বাভাবিক অবস্থায় সময় লাগে ৪ ঘণ্টা। ছুটির দিনে এই সময় বেড়ে হয়ে যায় ৮ ঘণ্টা। আর এই হ্যালিকপটার ট্যাক্সি করে যেতে সময় লাগে মাত্র ৪০ মিনিট। অভাবনীয়।

উবর আর গ্র্যাবের মতো কয়েকটা সংস্থা এই সমস্যা সমাধানের চেষ্টা করে আসছে গত কয়েক বছর ধরে। কিন্তু সম্ভব হয়ে ওঠেনি। হোয়াইটস্কাই-ই প্রথম সফল ভাবে এই ব্যবস্থা চালু করল।

উল্লেখ্য, ইন্দোনেশিয়ার প্রচলিত হেলিকপটার চার্টার বিমানগুলো খুবই ব্যয় সাপেক্ষ। এতে করে ছ’জনের জন্য ১ ঘণ্টার যাত্রায় লাগে ৬ কোটি রুপিয়া। আর সেখানে হেলিট্যাক্সিতে লাগে মাত্র ১ কোটি ৪০ লাখ রুপিয়া চারজন যাত্রীর জন্য। শহরের মধ্যে কোথাও যাওয়ার জন্য চারজনের খরচ মাত্র ৭০ লাখ রুপিয়া।

হোয়াইটস্কাই-এর সিইও ডেনন বলেন, এই পরিষেবা দেওয়ার জন্য ৫০টা হেলিকপটার কেনার চুক্তি স্বাক্ষর করা হয়েছে। আগামী ১০ বছরে সেগুলো সংস্থার হাতে আসবে। তার মধ্যে ৪টে ইতিমধ্যেই হাত পেয়েছে সংস্থা।

Share Button


আজকের বার্তা

আগরপুর রোড, বরিশাল সদর-৮২০০

বার্তা বিভাগ : ০৪৩১-৬৩৯৫৪(১০৫)
ফোনঃ ০১৯১৬৫৮২৩৩৯ , ০১৬১১৫৩২৩৮১
ই-মেলঃ ajkerbarta@gmail.com

সামাজিক যোগাযোগ
Site Map
Show site map

© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত
প্রকাশকঃ কাজী মেহেরুন্নেসা বেগম
সম্পাদক ও প্রতিষ্ঠাতাঃ কাজী নাসির উদ্দিন বাবুল
Website Design and Developed by
logo

আজকের বার্তা কর্তৃক সর্বস্বত্ব সংরক্ষিত। অনুমতি ছাড়া এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা, ছবি ও বিষয়বস্তু অন্য কোথাও প্রকাশ করা বেআইনি।