আজকের বার্তা | logo

১০ই ফাল্গুন, ১৪২৪ বঙ্গাব্দ | ২২শে ফেব্রুয়ারি, ২০১৮ ইং

বরিশালে পরীক্ষায় পাস করনোর নামে উপহার সামগ্রী উত্তোলন

প্রকাশিত : ডিসেম্বর ১৯, ২০১৭, ১৬:৫৪

বরিশালে পরীক্ষায় পাস করনোর নামে উপহার সামগ্রী উত্তোলন

বরিশাল প্রতিবেদক: প্রাথমিক বিদ্যালয়ে প্রথম শ্রেনী থেকে পঞ্চম শ্রেনী পর্যন্ত চারু ও কারুকলা বিষয়ে শিক্ষার্থীদের পাশ করানোর কথা বলে একটি বিদ্যালয়ের প্রায় তিন শতাধিক ছাত্র-ছাত্রীর কাছ থেকে প্রায় ২৫ হাজার টাকার উপহার সামগ্রী উত্তোলন করেছেন প্রধানশিক্ষক। বিষয়টি নিয়ে সর্বত্র তীব্র ক্ষোভের সৃষ্টি হয়েছে। ঘটনাটি জেলার গৌরনদী উপজেলার বার্থী ইউনিয়নের ২১নং কাঠালতলী সরকারী প্রাথমিক বিদ্যালয়ের।
সংশ্লিষ্ট সূত্রে জানা গেছে, অন্যান্য বছরগুলোতে চারু ও কারুকলা বিষয়ের ওপর পরীক্ষার সময় শিক্ষার্থীরা মাটি দিয়ে বিভিন্ন দুর্লভ জিনিসপত্র, তালপাখা ও ঝাড়– বানিয়ে বিদ্যালয়ে আনতো। এছাড়া স্কুলে বসেই প্রতিটি ক্লাশে আলাদাভাবে শিক্ষার্থীদের একেকটি বিষয়ের ওপর ছবি অঙ্কন প্রতিযোগীতা হতো। ওইসব মালামাল ও শিশুদের আঁকা ছবির ওপর ভিত্তি করেই চারু ও কারুকলা বিষয়ে শিক্ষার্থীদের নাম্বার দেয়া হতো।
কাঠালতলী সরকারী প্রাথমিক বিদ্যালয়ের একাধিক শিক্ষার্থী ও তাদের অভিভাবকরা জানান, এ বছর চারু ও কারুকলা বিষয়ের পরীক্ষার পূর্বে স্কুলের প্রধানশিক্ষক ইতি রানী দাস পূর্বের সকল নিয়ম ভেঙ্গে প্রথম শ্রেনী থেকে পঞ্চম শ্রেনীর শিক্ষার্থীদের আলাদাভাবে বক্স টিস্যু, টয়লেট টিস্যু, সাবান, শেম্পু ও ফুলের ঝাড়– আনার জন্য স্লিপ ধরিয়ে দেন। যারা এসব মালামাল না আনবে তাদের পরীক্ষায় ফেল করানোরও হুমকি দেয়া হয়। সূত্রে আরও জানা গেছে, প্রধানশিক্ষকের স্লিপ পেয়ে অভিভাবকরা বাধ্য হয়ে চাহিদা অনুযায়ী মালামাল ক্রয় করে দিতে বাধ্য হয়েছেন। এতে প্রতি শিক্ষার্থীর অভিভাবকদের গুনতে হয়েছে ৬০ থেকে ৭০ টাকা।

স্থানীয় রাজাপুর বাজারের ব্যবসায়ী মোঃ হানিফ জানান, স্কুলের শিক্ষার্থীরা প্রধানশিক্ষকের দেয়া স্লিপ দেখিয়ে তার দোকান থেকে চাহিদা অনুযায়ী মালামাল নিয়ে গেছে। অভিযোগের বিষয়ে প্রধানশিক্ষক ইতি রানী দাসের সাথে যোগাযোগ করা হলে তিনি এ ব্যাপারে কোন কথা বলতে রাজি হননি। তবে স্কুলের সহকারী শিক্ষক রুবি বেগম দাম্ভিকতার সুরে স্থানীয় সাংবাদিকদের বলেন, চারু ও কারুকলা বিষয়ের ওপর শিক্ষার্থীদের কাছ থেকে এসব মালামাল নেয়া হয়েছে। এনিয়ে রির্পোট করার কি আছে। স্কুল ম্যানেজিং কমিটির সভাপতি মোশারফ হোসেন ফকির বলেন, বিষয়টি আমার জানা নেই।

Share Button


আজকের বার্তা

আগরপুর রোড, বরিশাল সদর-৮২০০

বার্তা বিভাগ : ০৪৩১-৬৩৯৫৪(১০৫)
ফোনঃ ০১৯১৬৫৮২৩৩৯ , ০১৬১১৫৩২৩৮১
ই-মেলঃ ajkerbarta@gmail.com

সামাজিক যোগাযোগ
Site Map
Show site map

© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত
প্রকাশকঃ কাজী মেহেরুন্নেসা বেগম
সম্পাদক ও প্রতিষ্ঠাতাঃ কাজী নাসির উদ্দিন বাবুল
Website Design and Developed by
logo

আজকের বার্তা কর্তৃক সর্বস্বত্ব সংরক্ষিত। অনুমতি ছাড়া এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা, ছবি ও বিষয়বস্তু অন্য কোথাও প্রকাশ করা বেআইনি।