আজকের বার্তা | logo

১০ই জ্যৈষ্ঠ, ১৪২৫ বঙ্গাব্দ | ২৪শে মে, ২০১৮ ইং

কেবল কঙ্কাল বেচেই চার কোটি টাকা! পিছনের কাহিনিটি কী

প্রকাশিত : ডিসেম্বর ১৯, ২০১৭, ১৪:২৬

কেবল কঙ্কাল বেচেই চার কোটি টাকা! পিছনের কাহিনিটি কী

প্রাণীটির জীবন্ত অবস্থায় ওজন ছিল ১৪০০ কিলো। ১০ বছর আগে উত্তর-পশ্চিম সাইবেরিয়ায় কঙ্কালটি পাওয়া গিয়েছিল।

হাড় বেচে কত টাকা হতে পারে? এই প্রশ্নের উত্তরটিও প্রশ্নেই আসবে— কীসের হাড়? যেমন-তেমন প্রাণীর হাড় হলে মোটেই তেমন কিছু আমদানি হবে না। কিন্তু যদি সেই প্রাণীটি ১০,০০০ বছর আগে লুপ্ত হয়ে গিয়ে থাকে এবং তার গোটা কঙ্কালটাই যদি অবিকৃত অবস্থায় পাওয়া যায়, তা হলে তার দাম কত হতে পারে, জানাল ফ্রান্সের লিয়ন শহরের এক নিলামঘর।

এক সর্বভারতীয় সংবাদমাধ্যমের খবর অনুযায়ী, লিয়নের এই নিলামঘরে এক ম্যামথের কঙ্কাল নিলাম হয়েছে ৬,৪৪,৪৪০ মার্কিন ডলারে, যার ভারতীয় অর্থমূল্য ৪ কোটি টাকারও খানিক বেশি।

ম্যামথ বা প্রাগৈতিহাসিক হাতি পৃথিবী থেকে লুপ্ত হয়ে গিয়েছে ১০,০০০ বছর আগেই। এই কঙ্কালটির বিশেষত্ব এখানেই যে, কঙ্কালটি অক্ষত। তিন মিটার উচ্চতার এই কঙ্কালকে দাঁড় করানো হয়েছে এমন ভেবে, যেন সে হেঁটে চলেছে সামনের দিকে। এই কঙ্কালটিই এখনও পর্যন্ত প্রাপ্ত সর্ববৃহৎ ম্যামথ-কঙ্কাল। কঙ্কালটির ক্রেতা এক ওয়াটারপ্রুফ কোম্পানির সিইও। প্রসঙ্গত, এই কোম্পানির লোগোটিতে ম্যামথের ছবি রয়েছে।

ওয়াটারপ্রুফ কোম্পানি সোপ্রেমা-র সিইও পিয়ের-এতিয়েন বাইন্ডশেডলার সংবাদ সংস্থাকে জানিয়েছেন, আগুত্তে অকশন হাউস থেকে তিনি এই কঙ্কালটি কিনেছেন এই কারণেই যে, এই কঙ্কালে ৮০ শতাংশ আসল হাড় রয়েছে। বিশেষজ্ঞরা জানিয়েছেন, এই ম্যামথটির জীবন্ত অবস্থায় ওজন ছিল ১৪০০ কিলো। ১০ বছর আগে উত্তর-পশ্চিম সাইবেরিয়ায় কঙ্কালটি পাওয়া গিয়েছিল।

ম্যামথের কল্পিত রূপ। ছবি: পিক্সঅ্যাবে

তুষার যুগের শেষে যখন বরফ গলতে শুরু করে, তখনও লোমশ হাতি ম্যামথ অস্তিত্ব সংকটে পড়ে। এছাড়াও সেযুগের মানুষ প্রবল পরিমাণে ম্যামথ শিকার করে তাদের লুপ্তির পথ প্রশস্ত করে বলে জানা যায় বিভিন্ন গুহাচিত্র থেকে।

Share Button


আজকের বার্তা

আগরপুর রোড, বরিশাল সদর-৮২০০

বার্তা বিভাগ : ০৪৩১-৬৩৯৫৪(১০৫)
ফোনঃ ০১৯১৬৫৮২৩৩৯ , ০১৬১১৫৩২৩৮১
ই-মেলঃ ajkerbarta@gmail.com

সামাজিক যোগাযোগ
Site Map
Show site map

© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত
প্রকাশকঃ কাজী মেহেরুন্নেসা বেগম
সম্পাদক ও প্রতিষ্ঠাতাঃ কাজী নাসির উদ্দিন বাবুল
Website Design and Developed by
logo

আজকের বার্তা কর্তৃক সর্বস্বত্ব সংরক্ষিত। অনুমতি ছাড়া এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা, ছবি ও বিষয়বস্তু অন্য কোথাও প্রকাশ করা বেআইনি।