আজকের বার্তা | logo

২রা অগ্রহায়ণ, ১৪২৫ বঙ্গাব্দ | ১৬ই নভেম্বর, ২০১৮ ইং

আমতলীতে বৃষ্টিতে দুই কোটি টাকার কাঁচা ইট নষ্ট

প্রকাশিত : ডিসেম্বর ১১, ২০১৭, ২২:৫২

আমতলীতে বৃষ্টিতে দুই কোটি টাকার কাঁচা ইট নষ্ট

বরগুনা প্রতিনিধি– বরগুনার আমতলী উপজেলায় গত তিন দিনের বৃষ্টিতে ১৬ টি ইটভাটার প্রায় দুই কোটি টাকার কাঁচা ইট বৃষ্টির পানিতে নষ্ট হয়ে গলে মাটির সঙ্গে মিশে গেছে।

আমতলী উপজেলা ইট ভাটা মালিকদের সূত্রে জানা গেছে, আমতলী উপজেলায় প্রায় ১৬ টির মত ছোট বড় ইটভাটা রয়েছে। এসকল ভাটায় বছরে প্রায় ৭ কোটি ইট উৎপাদন হয়। চলতি মৌসুমের মাঝামাঝি এসে ভাটা মালিকরা বৃষ্টির কারণে ইট উৎপাদনে হোচট খান।

শুক্র শনিবার ও রবিবার আকস্মিক টানা তিন’দিনের ভারী বৃষ্টিপাত শুরু হলে মালিকরা তাদের ভাটার কাঁচা ইট বৃষ্টির হাত থেকে রক্ষা করতে পারেনি। ভাটার উৎপাদিত কাঁচা ইট পলিথিন দিয়ে ঢেকে রক্ষার চেষ্টা করেও তারা ব্যার্থ হন। বৃষ্টির পরিমাণ বেশী হওয়ায় মাঠে পানি জমে যাওয়ায় স্তুপ করে রাখা ইটও পানিতে গলে মাঠের মধ্যে ছড়িয়ে যায়।

সোমবার দুপুরে সরেজমিনে আমতলীর তালতলায় হিযবুল্লাহ ব্রিকস, উরষি তলায় আকন ব্রিকস, দক্ষিণ পশ্চিম আমতলীর সাগর ব্রিকস, হলদিয়ার সারা ব্রিকস, গুলিশাখালীর এনবিএম ব্রিকস ইট ভাটা ঘুরে দেখা গেছে, লাখ লাখ কাঁচা ইট বৃষ্টির পানিতে গলে মাঠে পড়ে আছে। পলিথিন দিয়ে শুকনো কাঁচা ইট ঢেকে রক্ষার চেষ্টা করা হলেও তা শেষ রক্ষা হয়নি।

মের্সাস হিযবুল্লাহ ব্রিকস সত্ত্বাধিকারী মো: লুঃফর রহমান খান জানান, বৃষ্টির পানিতে আমার ভাটার প্রায় সাড়ে ৪ লাখ কাঁচা ইট পানিতে গলে মাঠের মধ্যে মিশে গেছে। এতে ক্ষতি হয়েছে প্রায় ১৫ লাখ টাকা।

তিনি আরো জানান, মাঠের মধ্যে গলে যাওয়া ইটের মাটি সরাতে আরো প্রায় ২ লাখ ৫০ হাজার টাকা খরচ হবে। গুলিশা খালীর এনবিএম ভাটার মালিক এ্যাডভোকেট নুরুল ইসলাম জানান, আমার প্রায় ১৪ লাখ টাকা মূল্যের সাড়ে ৩ লাখ কাঁচা ইট নষ্ট হয়েছে।

এইচ আরটি ব্রিকস এর মালিক মো. দিলসাদ পারভেজ রিপন তালুকদার জানান, বৃষ্টির পানিতে প্রায় সাড়ে ৪ লাখ ইট গলে মাটিতে মিশে গেছে। তিনি আরো জানান, প্রথম দিন পলিথিন দিয়ে শুকনো কাঁচা ইট ঢেকে দিয়েছিলাম কিন্তু মাঠে পানি জমে সব গলে গেছে। এখন নতুন করে ইট তৈরীতে আরো প্রায় ১৫ দিন সময় লাগবে এতে তার প্রায় ২০ লাখ টাকার ক্ষতি হয়েছে বলে জানান।

হলদিয়ার সারা ব্রিকস এর মালিক মো. শহিদুল ইসলাম মৃধা জানান , বৃষ্টিতে তার ৮ লাখ কাঁচা ইট নষ্ঠ হয়েগেছে এতে তার প্রায় ৩০ লাখ টাকার ক্ষতি হয়েছে।

আমতলী উটজেলা ইটভাটা মালিক সমিতির সভাপতি সাগর ব্রিকস এর মালিক নাজমুল আহসান নাননু জানান, আমতলী উপজেলায় ছোট বড় প্রায় ১৬টির মত ইট ভাটা রয়েছে। আকস্মিক বৃষ্টিতে এসকল ভাটার প্রায় দুই কোটি টাকার কাঁচা ইট পানিতে গলে মাটির সাথে মিশে গেছে। গলে যাওয়া ইটের মাটি সরাতে আরো প্রায় অর্ধকোটি টাকা শ্রমিকের পেছনে ব্যায় হবে। তাছাড়া এলাকায় যে পরিমাণ ইটের চাহিদা রয়েছে সে চাহিদা এবছর মিটানো সম্ভব হবে না ফলে ইটের দাম বেড়ে যাওয়ার সম্ভাবনা রয়েছে।

Share Button


আজকের বার্তা

আগরপুর রোড, বরিশাল সদর-৮২০০

বার্তা বিভাগ : ০৪৩১-৬৩৯৫৪(১০৫)
ফোনঃ ০১৯১৬৫৮২৩৩৯ , ০১৬১১৫৩২৩৮১
ই-মেলঃ ajkerbarta@gmail.com

সামাজিক যোগাযোগ
Site Map
Show site map

© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত
প্রকাশকঃ কাজী মেহেরুন্নেসা বেগম
সম্পাদক ও প্রতিষ্ঠাতাঃ কাজী নাসির উদ্দিন বাবুল
Website Design and Developed by
logo

আজকের বার্তা কর্তৃক সর্বস্বত্ব সংরক্ষিত। অনুমতি ছাড়া এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা, ছবি ও বিষয়বস্তু অন্য কোথাও প্রকাশ করা বেআইনি।